রাষ্ট্রপতির সাথে বৈঠকে বসতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন

    0
    39

    আমার সিলেট  24 ডটকম,১৮নভেম্বরঃ আসন্ন ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল চূড়ান্ত করতে আগামীকার মঙ্গলবার বিকেলে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সাথে বৈঠকে বসতে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। মঙ্গলবার বিকাল ৪টায় অনুষ্ঠেয় এ বৈঠকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকিবউদ্দীন আহমদসহ নির্বাচন কমিশনাররা ও ইসি সচিব উপস্থিত থাকবেন। এ বৈঠকে আগামী সংসদ নির্বাচনের তফসিল চূড়্ন্ত করা এবং সব দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ করবে ইসি। এছাড়াও নবম সংসদ ভেঙ্গে দেয়া ও নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের বিষয়েও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে ইসি সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে।
    এদিকে ইসির নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখার এক সিনিয়র কর্মকর্তার সুত্রে জানা যায়, নির্বাচনের জন্য কয়েকটি খসড়া তফসিল সঙ্গে নিয়ে যাবেন সিইসি। এক্ষেত্রে রাষ্ট্রপতির পরামর্শ নিয়ে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করা হবে। ইতিমধ্যে খসড়া তফসিল প্রায় চূড়ান্ত করা হয়েছে বলেও জানা তিনি। অবশ্য রাষ্ট্রপতির কাছে যাওয়ার আগে আগামীকাল মঙ্গলবার সকালে কমিশনাররা নির্বাচনের তফসিলের খসড়ার ভুল-ত্রুটি খতিয়ে দেখবেন বলেও জানা গেছে।
    সংবিধান অনুযায়ী আগামী ২৪ জানুয়ারির মধ্যে নিবাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সম্প্রতি সিইসি গণমাধ্যমে বলেন, শেষের দিকে কিছু সময় হাতে রেখে ৪৫-৪০ সময় নিয়ে তফসিল ঘোষণা করা হবে। সে হিসেবে নভেম্বর শেষে তফসিল ঘোষণা করতে হবে। এক্ষেত্রে নির্বাচন হবে আগামী ৯ জানুয়ারি থেকে ১৬ জানুয়ারির মধ্যে। আর এ সময়ের মধ্যে সম্ভব না হলে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে তফসিল দিতেই হবে। অন্যথায় ২৪ জানুয়ারি মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব নয় বলেও ইসি মনে করছে।
    একজন নির্বাচন কমিশনারের সুত্র থেকে জানা যায়, তিনি বলেন, আমারা চাই সবার অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হোক। তাই সে বিষয়টিই নিশ্চিত করতেই রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ জানাবো আমরা। এক্ষেত্রে সংসদ ভেঙ্গে দেয়ার জন্য রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ করা হবে বলেও নিশ্চিত করেন তিনি। তার মতে, সংসদ ভেঙ্গে নির্বাচন হলে সবার জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত করা সহজ হবে বলেই মনে করে ইসি।
    বৈঠকে সিইসি ও কয়েকজন কমিশনার বিভিন্ন সময় গণমাধ্যমে যেসব বক্তব্য দিয়েছেন সেগুলোর প্রতিফলই ঘটবে বলে জানা গেছে। গত ৬ নভেম্বর সিইসি বলেছিলেন, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনের একটা সময় সীমা আছে। আমরা সে সময়ের শেষ পর্যন্ত রাজনৈতিক দলগুলোর সমঝোতার জন্য অপেক্ষা করবো। সবার অংশগ্রহণে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের জন্য আমাদের অপেক্ষা করা উচিত। এর আগে ৩০ অক্টোবর তিনি বলেছিলেন, আশাকরি সমঝোতা হতে পারে।সমঝোতা হলে আলহামদুলিল্লাহ।
    নির্বাচনের সবার জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টির বিষয়ে গত ৮ সেপ্টেম্বর নির্বাচন কমিশনার  আবু হাফিজ সাংবাদিকদের বলেছিলেন, সংসদ ভেঙ্গে গেলে লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি সহজ হবে। আর সংসদ বহাল থাকলে নির্বাচন করা করা দূরুহ হবে। নির্বাচন কমিশনার শাহ নেওয়াজ সব সময়ই বলে আসছেন, আশাকরি দলগুলোর মাঝে সমঝোতা হবে। সবার অংশগ্রহণে একটি সুষ্ঠু সুন্দর ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন আমরা দেশবাসীকে উপহার দেব বলে তিনি জানিয়েছেন।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here