রাজনৈতিক অস্থিরতাকে মোকাবেলা করে শিশুরা সফলঃমেনন

    1
    5

    আমারসিলেট24ডটকম,০৫ফেব্রুয়ারীঃবেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান  মেনন এমপি বলেছেন, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে একটি রাজনৈতিক  জোটের অব্যাহত সহিংস কর্মসূচির পরও আমাদের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জন করেছে। কোমলমতি শিশুদের পিএসসি এবং জেএসসি পরীক্ষার দিনেও তারা হরতাল-অবরোধ ডেকে মেধা বিকাশের ধারাকে বাধাগ্রস্থ করতে চেয়েছে। কিন্তু নানা প্রতিকুলতার মধ্যেও শিশুরা পড়ালেখায় মনোযোগি ছিল। যার প্রমান সম্প্রতি প্রকাশিত পাবলিক পরীক্ষার ফলাফলে আমরা দেখতে পাই।

    আজ বুধবার বিকাল ৩টায় রাজধানীর ঐতিহ্যবাহী উইল্স লিট্ল ফ্লাওয়ার স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক পুরস্কার বিতরণী এবং গভর্ণিং  বডির চেয়ারম্যান হিসেবে মন্ত্রীকে দেয়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি আরো বলেন, স্বাধীনতার ৪০ বছর পর এ সরকারের আমলেই একটি শিক্ষানীতি বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়েছে। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা সৃজনশীল পরীক্ষায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে তাদের মেধার বিকাশ ঘটিয়েছে। শিক্ষার্থীদের ভালো ফলাফলের ধারাবাহিকতা রক্ষায় মন্ত্রী তাদেরকে অধ্যবসায় এর সঙ্গে লেখাপড়ার আহ্বান জানান। শিক্ষকদের মর্যাদার কথা উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, শিক্ষা আইনের খসড়ায় শিক্ষকদের শাস্তির কথা উল্লেখ ছিল। কিন্তু শিক্ষকরা অত্যন্ত সম্মানিত ব্যক্তি। শাস্তি কথাটি তাদের ক্ষেত্রে মানায় না। তাই আমরা কথাটি বাদ দিয়েছি। তিনি শিক্ষার্থীদের প্রতি আরো দায়িত্বশীল হওয়ার জন্য শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানান।

    প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ কর্ণেল বাবর মোঃ সেলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের শুরুতেই মন্ত্রীকে ফুল, ক্রেস্ট আর   সম্মাননা পত্র দিয়ে বরণ করা হয়। প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নেয়ায় মন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান অধ্যক্ষ। পরে মন্ত্রী কৃতি শিক্ষার্থী, ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন ইভেন্টে বিজয়ী এবং দল হিসেবে চ্যাম্পিয়ন দলের মধ্যে পুরষ্কার এবং ট্রফি বিতরণ করেন। অনুষ্ঠান মঞ্চে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গভর্ণিং বডির সদস্য মোঃ জাহিরুল ইসলাম, সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ নাসির উদ্দিন প্রমুখ।

    সহকারী শিক্ষক মোঃ মহিবুল হাসানের কুরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে মন্ত্রী আরো উল্লেখ করেন ধর্মীয় জঙ্গিবাদের উত্থান প্রতিরোধে আমাদের শিশু কিশোরদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্ধুদ্ধ করতে হবে। আমরা  উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করছি,  দেশের বিভিন্ন শিক্ষালয়ে প্রতিদিন কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ধর্ম ও নৈতিকতার নামে এবং বৈষয়িক সুযোগ-সুবিধা দিয়ে ধর্মীয় জঙ্গিবাদীতে পরিণত  করা হচ্ছে। মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকতা ও জঙ্গিবাদের কোন স্থান নেই। তাই আগামী প্রজন্ম যাতে দেশের গৌরবময় ইতিহাস জানতে পারে সে ব্যাপারে শিক্ষকদের সচেতন থাকতে হবে।

    অনুষ্ঠানের  শেষ পর্বে উইল্স কালচারাল ক্লাবের সদস্যদের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here