রাজনগরে চেয়ারম্যান সমর্থকদের উপর হামলায় আসামী-২৫০

    0
    7

    উভয় পক্ষ থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে দুটি মামলাই নথিভূক্ত হয়ঃরাজনগর ওসি

    আলী হোসেন রাজন,মৌলভীবাজার:  মৌলভীবাজার রাজনগর থানায় উপজেলা চেয়ারম্যান শাহাজান খানের সমর্থকদের উপর হামলায়,২৫০ জনকে আসামী করে মামলা হয়েছে। চেয়ারম্যান শাহজাহান খানের পক্ষে উপজেলা যুবলীগের ক্রীড়া সম্পাদক তানিম খান বাদী হয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মিলন বখত, কামারচাক ইউপি চেয়ারম্যান নজমুল হক সেলিম, মুন্সিবাজার ইউপি চেয়ারম্যান ছালেক আহমদ, ফতেহপুর ইউপি চেয়ারম্যান নকুল চন্দ্র দাস, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ময়নুল ইসলাম খান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ফৌজি, ছাত্রলীগের সভাপতি রুবেল আহমদ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ ২৫ জনের নাম উল্লেখ করে ২৫০ জনকে আসামী করা হয়েছে। মামলায় (নং-৪,জিআর ১৭/২০২১) বলা হয়েছে বাদীকে যুবলীগের সভাপতি ময়নুল ইসলাম খান, সহসভাপতি সিজু আহমদ সম্পাদক আব্দুল কাদির ফৌজিসহ কয়েকজন সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করার প্রস্তাব করে।

    এতে তিনি রাজি না হয়ে ঘটনার দিন ১১ ফেব্রুয়ারী উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে বিষয়টি জানানোর সময় সাধারণ সম্পাদক মিলন বখতের নেতৃত্বে বন্দুক, পিস্তল ও দেশিয় অস্ত্রেসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে হামলা চালায়। এতে তাদের বিভিন্ন নেতাকর্মী আহত হন। রাজনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসিম বলেন, এঘটনায় উভয় পক্ষে রাজনগর থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে দুটি মামলাই নথিভূক্ত হয়। মামলা তদন্তাধীন রয়েছে। পুলিশ আসামীদের গ্রেফতারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।
    উলেখ্য,সূত্র জানায় রাজনগর উপজেলা চেয়ারম্যান ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা শাহাজান খান এবং ৮ নং মনসুর নগর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও রাজনগর উপাজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মিলন বখত এর মধ্যে ১১ ফেব্রুয়ারী বৃহস্পতিবার দুপুর ১ টার পর একপক্ষ অপর পক্ষের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকে। এসময় উপাজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মিলন বখত সমর্থকরা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে রাজনগর উপজেলা চেয়ারম্যান শাহাজান খান সমর্থদের উপর। পাল্টা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করলে মিলন বখত এর সমর্থকরা দেশীয়অস্ত্র, আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে শাহাজান খানের সমর্থকদের উপর হামলা চালায়।
    পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ১০৩ রাউন্ড রাবার বুলেট ও ৪ রাউন্ড টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে। সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ সহ আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন।