মৌলভীবাজারে বিদেশী মদ-ইয়াবা ও গাড়ীসহ গ্রেফতার-১৭

    0
    28

    “চোরচক্র ও মাদক নির্মূলের লক্ষে এ ধরনের অভিযান চলমান থাকবেঃপুলিশ সুপার মো: জাকারিয়া” 

    আলী রাজন,মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ   নিয়ন্ত্রণ, সন্ত্রাস দমন, চাঁদাবাজি রোধ, চুরি , ছিনতাই ও ডাকাতি প্রতিরোধসহ মৌলভীবাজার জেলার সামগ্রিক আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় কাজ করছে জেলা পুলিশ। এরই ধারাবাহিকতায় সিলেট রেঞ্জব্যাপি চলমান ১০ দিনের বিশেষ অভিযানের ৪ দিনে মৌলভীবাজার জেলার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে ৩০৬ লিটার দেশীয় মদ,২৮১ বোতল বিদেশী মদ,৩৯ পিস ইয়াবা,২৭০ গ্রাম গাঁজা সহ ১৩ জন মাদক বিক্রেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

    বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সাথে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান পুলিশ সুপার মো: জাকারিয়া। তিনি জানান এদের সবার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

    এছাড়াও মৌলভীবাজার জেলায় তাঁর যোগদানের পড় থেকে তাঁর দিক নির্দেশনায় আরও কিছু বিশেষ অভিযানের বিষয় তিনি তুলে ধরে বলেন , মৌলভীবাজার জেলা পুলিশ গাড়ী ও মোটর সাইকেল চুরি প্রতিরোধে বিশেষ ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি রাতে শ্রীমঙ্গল সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশরাফুজ্জামান এর নেতৃত্বে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের একটি চৌকস টিম শ্রীমঙ্গল মাইজদিহি থেকে ৩টি চুরিকৃত গাড়ী ও ১টি মোটরসাইকেলসহ ৪জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে।

    উদ্ধারকৃত গাড়ীর মধ্যে রয়েছে, ১ টি লাল রংয়ের পুরাতন প্রো বক্স (রেজিঃ নং-চট্ট মেট্রো-গ-১১-৭৮৪৬), ১টি সাদা রংয়ের পুরাতন নোহা কারগাড়ি (রেজিষ্ট্রেশন নং-চট্ট মেট্রো-চ-৫১-০৫৩৮), ১টি সিলভার রংয়ের পুরাতন এক্স করলা গাড়ি (রেজিস্ট্রেশন নং-ঢাকা মেট্রো-গ-১৭-৩৪৬৬) ও ১টি মোটর সাইকেল। গ্রেফতারকৃত আসামীরা হলেন , জাহিদ হাসান জিতু (২৭), পিতা-টেনু মিয়া, মাতা-হালেমা বেগম, সাং-হাজীপুর, থানা-শ্রীমঙ্গল, জসিম মিয়া (৩৩), পিতা-মোঃ মনির মিয়া, সাং-লামুয়া, থানা- শ্রীমঙ্গল, জেলা-মৌলভীবাজার, সাইদুল ইসলাম (২৫), পিতা- বশির মিয়া, সাং-ভাড়াভিম, থানা ও জেলা-মৌলভীবাজার, লিটন মিয়া (৩০), পিতা-মৃত করিম মিয়া, সাং-লামুয়া, থানা- শ্রীমঙ্গল, জেলা-মৌলভীবাজার, এদের সবার বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

    পুলিশ সুপার আরও বলেন, ইতিমধ্যে জেলা পুলিশ মৌলভীবাজার জেলায় চা ল্যকর অঞ্জনা (তৃতীয় লিঙ্গ) হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন, চাঞ্চল্যকর গণধর্ষন মামলার রহস্য উদঘাটন, পর্নোগ্রাফী সংক্রান্ত মামলার আসামী গ্রেফতার ও শ্রীমঙ্গেলের মানব পাচারকারী চক্রের মূলহোতা আছমা বেগমসহ মোট ৫ জনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে, এদের সবার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। চোরচক্র ও মাদক নির্মূলের লক্ষে এ ধরনের অভিযান চলমান থাকবে বলে জানান পুলিশ সুপার।

    সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) হাসান মোহাম্মাদ নাছের রিকাবদার , অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো: জিয়াউর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) এ,বি,এম মুজাহিদুল ইসলাম পিপিএম, শ্রীমঙ্গল সার্কেলের সিনিয়র এএসপি আশরাফুজ্জামান, ডিআইও-১ মোঃ আবু তাহের ও জেলার ৭ উপজেলার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাবৃন্দ।