মৌলভীবাজারে পুলিশ কর্তৃক সংবাদ কর্মী লাঞ্ছিত

    0
    10

    আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২২জুন,নিজস্ব প্রতিনিধিঃ   মৌলভীবাজারে পুলিশ কর্তৃক সংবাদ কর্মী লাঞ্ছিতের ঘটনা ঘটেছে। মৌলভীবাজার জেলার শেরপুর পুলিশ ফাড়ীর ইনচার্জ আবু সাঈদ কর্তৃক স্বাধীনবাংলা নিউজ ডটকমের মৌলভীবাজার প্রতিনিধি ফারুক আহমদ সংবাদ সংগ্রহের জন্য ছবি তুলতে গিয়ে লাঞ্ছিত হয়েছেন তার হাতে।

    জানা যায়-গতকাল মঙ্গলবার পৌনে ৫ টায় শেরপুর সমাজ কল্যান সংস্থার নিউজ কভারেজ শেষে স্থানীয় কুশিয়ারা নদীর পানি বিপদসীমা অতিক্রম করে প্রবাহিত হচ্ছে জানতে পেরে সরেজমিন তথ্য সংগ্রহে যাবার পথে ওই সংবাদ কর্মী স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ির কাছে পৌছালে একটি মাইক্রোবাস ঘিরে কৌতূহলী  লোকজনের ভীর দেখে এগিয়ে গেলে স্থানীয়দের কাছ থেকে জানতে পারেন ২ জন ছিনতাই কারীকে জনতা ধরে পুলিশে দিয়েছেন।

    তাদের কোর্টে চালান দিচ্ছে মাইক্রোবাসে করে এ সময় ওই প্রতিনিধি সংবাদ প্রকাশের জন্য আসামীদের ছবি তুলার চেষ্টা করেন এমতাবস্থায় একজন ট্রিশাট পরিহিত ব্যাক্তি পিছন হতে ওই সংবাদ কর্মীকে সজোরো ধাক্কা মারে। এমন অশুভনিয় আচরনে সনবাদ কর্মী হঠাৎ আঁতকে উঠে,এ রকম আচরনের কারন জানতে চাইলে ওই পুলিশ কর্মকর্তা আবু সাঈদ দম্ভ করে চেঁচিয়ে উঠে বলেন “এটা কি তোর বাপের রাষ্ট, কার হুকুমে ছবি তুলছস? বলেই পুণঃরায় হামলা করতে উদ্যতহলে স্থানীয় লোকজনও কয়েকজন আওয়ামীলীগকর্মী সংবাদ কর্মীকে সেখান থেকে উদ্ধার করেন বলে আহত প্রতিনিধি জানান।

    বিষয়টি মৌলভীবাজার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম আহমেদকে অবগত করলে প্রথমে তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন এবং যথাযথ সুবিচারের আস্বাস দেন। পরে  লাঞ্ছিত প্রতিনিধি প্রতিনিধি বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় পূনঃবিষয়টির অবস্থা জানতে ফোন দিলে ব্যাস্ততার কারনে বিষয়টি দেখেননি-তবে দেখবেন বলে জানান। প্রায় ৫মিনিট পরে নিজেই কলকরে সংবাদ কর্মী থেকে ওসি  সেলিম আহমেদ  নিউজ পোর্টালের নাম জানেন এবং বিস্তারিত শুনে একটি অভিযোগ করার কথা বলেন এবং “পিছন থেকে কয়টি লাথি মেরেছেন বলে এজহারে লিখতে বলেন।” “কিভাবে মারল কেমনে মারল বলে অভিযোগটি নিয়ে উপহাস করেন মৌলভীবাজার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম বিষয়টি আমার সিলেটকে অভিযোগ কারী সাংবাদিক  জানান।তবে  তার ভয়েস রের্কডটি রক্ষিত আছে।

     

     

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here