মোবাইলে কল শেষেই প্রি-পেইড গ্রাহকদের ব্যালেন্স জানাতে অপারেটরদের নির্দেশনা দিয়েছে বিটিআরসি

    0
    4

    মোবাইলের আউটগোয়িং কলের পর পরই প্রি-পেইড গ্রাহকদের ব্যালেন্স জানাতে অপারেটরদের নির্দেশনা দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। 

    মোবাইলে কল শেষেই প্রি-পেইড গ্রাহকদের ব্যালেন্স জানাতে অপারেটরদের নির্দেশনা দিয়েছে বিটিআরসি
    মোবাইলে কল শেষেই প্রি-পেইড গ্রাহকদের ব্যালেন্স জানাতে অপারেটরদের নির্দেশনা দিয়েছে বিটিআরসি

    মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের স্বার্থ রক্ষা করতে এবং টেলিযোগাযোগ খাতে সুশৃঙ্খল অবস্থা বজায় রাখতেই এসব নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে জানায় বিটিআরসি।

    আগামী সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যেই এই নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

    সম্প্রতি বিটিআরসির সিস্টেম এন্ড সার্ভিসেসের পরিচালক লে. কর্ণেল মো. রকিবুল হাসান স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে অপারেটরদের প্রতি এই নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

    এছাড়া পত্রিকায় বিজ্ঞাপনের নিয়ম ও রিচার্জের মেয়াদ ও সিম কার্ডের মেয়াদ নির্ধারণসহ মোবাইল ফোন অপারেটরদের জন্য মোট নয়টি নির্দেশনা জারি করে বিটিআরসি, যা চলতি মাসের মধ্যেই কার্যকর করতে হবে।

    নির্দেশনায় বলা হয়, কোনো গ্রাহক তার পুরানো সিম কার্ডের সংযোগ বন্ধের এক বছরের মধ্যে যে কোনো সময় রিচার্জ করে সংযোগটি তাৎক্ষনিকভাবে সচল করতে পারবে। এ সময়সীমা অতিক্রম হলে গ্রাহক সংযোগ পুনরায় সচল করতে চাইলে অনধিক ৫০ টাকার বিনিময়ে নতুন সিম কিনতে পারবেন।

    বর্তমানে গ্রাহকদের (অপারেটরভেদে ভিন্ন) সংযোগ একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত ব্যবহার না করে পুনরায় সচল করতে চাইলে নতুন সিম কার্ড কিনতে হয়। বিটিআরসিরি নির্দেশনা জারি হওয়ায় সিম কার্ড হারিয়ে বা নষ্ট না হলে সংযোগ বন্ধের এক বছরের মধ্যে নতুন সিম কার্ড কেনার প্রয়োজন থাকবে না।

    প্রি-পেইড সংযোগে রিচার্জের পরিমানের উপর মেয়াদ নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। ১০ থেকে ৩০ টাকা পর্যন্ত রিচার্জে ১০ দিন এবং এক হাজার টাকার উপর রিচার্জে মেয়াদ এক বছরসহ বিভিন্ন রিচার্জের মেয়াদ নির্ধারণ করা হয়।

    মোবাইল ফোন অপারেটরদের কোনো সেবার ক্ষেত্রে গ্রাহকরা নিবন্ধন করলে নিশ্চিতকরণ এসএমএসে ওই সেবা বাদ দেওয়ার পদ্ধতিরও উল্লেখ থাকতে হবে বলেও নির্দেশনায় বলা হয়েছে।

    নির্দেশনায় বলা হয়, মোবাইল ফোন অপারেটরদের যে কোনো ‘অফারের’ ক্ষেত্রে পত্রিকা, ম্যাগাজিন বা ওয়েবসাইটে কেবল ‘শর্ত প্রযোজ্য’ উল্লেখ করলে আর চলবে না। বিষয়টির সব প্রয়োজনীয় তথ্য স্পষ্ট ও পাঠযোগ্য আকারে প্রকাশ করতে হবে। কোনো কারণে পত্রিকা বা ম্যাগাজিনে মূল বিজ্ঞাপনে সব তথ্য দেয়া সম্ভব না হলে ভেতরের পাতায় তা অবশ্যই প্রকাশ করতে হবে এবং তা মূল বিজ্ঞাপনে উল্লেখ থাকতে হবে।

    কোনো অফারের ক্ষেত্রে মাসিক বা কোনো নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সাবস্ক্রিপশন ফি কেটে নেয়ার আগে ও পরে গ্রাহককে দুইবার ‘নোটিফিকেশন’ এসএমএস দিতে হবে বলেও নির্দেশনা বলা হয়েছে।

     

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here