মানবতাবিরোধী দণ্ডাদেশের বিরুদ্ধে আপিলের রায় আজ

    0
    7

    আমারসিলেট 24ডটকম , সেপ্টেম্বর  : ১৯৭১ সালের মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে দায়ের কারা মামলায় জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে আপিলের রায়কে কেন্দ্র করে রাতেই শাহবাগে ফিরছে গণজাগরণ মঞ্চ। রায় ঘোষনার দিনক্ষণ ঘোষণা করার পর থেকেই গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা শাহবাগে অবস্থানের প্রস্তুতি শুরু করেছে বলে জানা গেছে।

    তারা জানান,গত রাত শাহবাগেই অবস্থান করছে নেতা কর্মীরা। সর্বোচ্চ শাস্তি না হলে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে। সোমবার বিকেলে গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ব্লগার এন্ড অনলাইন এক্টিভিটিস্ট নেটওয়ার্কের আহ্বায়ক ডা. ইমরান এইচ সরকার একথা জানিয়ে বলেন, সর্বোচ্চ শাস্তি না হলে কর্মীরা চলমান আন্দোলনকে আরো বেগবান করতে রাজপথে অবস্থান করবে এবং আগামীকাল আরও কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। তিনি বলেন,  সারারাত এবং  রায় ঘোষণা পর্যন্ত আমরা শাহবাগে অবস্থান করবো। স্লোগানে স্লোগানে শাহবাগ মাতাবে গণজাগরণ মঞ্চের কর্মীরা।
    ইমরান বলেন, কাদের মোল্লার রায়ের বিরুদ্ধে আপিলের মামলা আমাদেরই আন্দোলনের ফসল। আমরা তার ন্যায় বিচার ও সর্বোচ্চ শাস্তি আশা করছি। প্রসঙ্গত এর আগে এ বছরের ৫ ফেব্রুয়ারি মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল আবদুল কাদের মোল্লাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দেয় আন্তর্জাতিক অপরাধট্রাইব্যুনাল-২। এরপর গণজাগরণ মঞ্চের আন্দোলনের কারণে ১৭ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালস সংশোধন বিল-২০১৩ জাতীয় সংসদে পাস করে রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করা হয়।
    আদালত সূত্রে জানা যায়, জামায়াত নেতা আবদুল কাদের মোল্লার জাবজ্জীবন দণ্ডাদেশের বিরুদ্ধে করা আপিলের ওপর চূড়ান্ত রায় আগামীকাল মঙ্গলবার ঘোষণা করা হবে। প্রধান বিচারপতি মো. মোজাম্মেল হোসেনের নেতৃত্বাধীন পাঁচ বিচারপতির নেতৃত্বে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের আপিলের শুনানি শেষে এ রায় ঘোষণা করছেন। বেঞ্চের অন্য চারজন বিচারপতি হলেন- সুরেন্দ্র কুমার সিনহা, মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞা, সৈয়দ মাহমুদ হোসেন এবং এ এইচ এম শামসুদ্দিন চৌধুরী। এর আগে দীর্ঘ অবকাশকালীন ছুটি শেষে গতকাল রবিবার সুপ্রিম কোর্ট খুলেছে। এরপর আজ সোমবার রায় প্রদানের দিন ধার্য করেছেন সর্বোচ্চ আদালত। এটিই হবে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় দণ্ডাদেশের বিরুদ্ধে আপিলের প্রথম রায়।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here