মন্নাফের জমি কেড়ে নিতেই সমাজচ্যূতের রায়

    0
    5

    আমারসিলেট 24ডটকম ,২২সেপ্টেম্বর এস. এম. সুলতান খান : চুনারুঘাটে সাটিয়াজুরী ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন মন্নাফের জমি কেড়ে নিতেই সমাজচ্যূতের রায়।চুনারুঘাট উপজেলার ৮নং সাটিয়াজুরী ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে একটি নিরীহ পরিবার। উপজেলার সাটিয়াজুরী ইউপি চেয়ারম্যান সরকার মোঃ শহীদ এর নির্যাতনের শিকার বাসুদেবপুর গ্রামের বৃদ্ধ আব্দুল মনাফ (৮০) সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত অভিযোগে জানান, তার পৈত্রিক সম্পত্তি কেড়ে নেয়ার জন্য তাকে সমাজচ্যুত করা হয়েছে। সেজন্যে মন্নাফের পরিবার এক ঘরে অবস্থায় দিনাতিপাত করছেন। তার পরিবারের কোন সদস্য হাটে-বাজারে যেতে পারছেন না।

    গতকাল শনিবার চুনারুঘাট রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন মন্নাফের স্ত্রী মোস্তারা খাতুন, কন্যা কামরুন্নাহার, পুত্র মোহাম্মদ আলী, আহম্মদ আলীসহ অন্যান্য সদস্য। সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত অভিযোগে তিনি আরো বলেন, বাসুদেবপুর মৌজার (টিকের বাজার) জে এল নং- ৮৯, খতিয়ান নং- ২১৮, দাগ নং- ৬৬৭, ৩৫ শতক ভূমি রয়েছে। ওই ভূমির উপর লোলুপ দৃষ্টি পড়ে একই এলাকার দিদার হুসেন, আবু তাহের, আবুল কাশেম গংদের। তারা জোরপূর্বক ওই জমি জবর দখল করে রাখলে ২০০৩ সালে মন্নাফ অসহায় হয়ে  হবিগঞ্জ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। যা বর্তমানে বিচারাধীন রয়েছে। এছাড়া ওই ভূমির উপর ১৪৪ ধারা জারি রয়েছে।

    সম্প্রতিক সময়ে চেয়ারম্যান সরকার মোঃ শহীদ প্রভাব কাটিয়ে প্রতিপক্ষের কাছ থেকে ওই ভূমির ১৬ শতাংশ ভূয়া দলিল করে নেন। পরবর্তীতে গত ২ সেপ্টেম্বর বাসুদেবপুর (টিকের বাজারে) চেয়ারম্যান তার লোকবল দিয়ে একটি শালিস বৈঠক আহ্বান করেন। ওই বৈঠকে নিরপেক্ষ কোন মুরুব্বী না থাকায় মন্নাফ বৈঠকে উপস্থিত হননি। এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে চেয়ারম্যান আঃ মন্নাফ এর পরিবারকে সমাজচ্যূত করেন। তিনি এ বিষয়টি ইতি মধ্যেই সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি, হবিগঞ্জ পুলিশ সুপার, চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ওসি চুনারুঘাটকে অবহিত করেছেন। এ সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চুনারুঘাট রিপোটার্স ইউনিটির সভাপতি নূরুল আমীন, সহ-সভাপতি হাসান আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফারুক মাহমুদ, নির্বাহী সদস্য সিরাজুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী সুজন, এম এ বাতেন, এম এ আউয়ালসহ রিপোটার্স ইউনিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here