ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রলার ডুবে ২১ মরদেহ উদ্ধার, হতাহত বৃদ্ধির আশঙ্কা !

0
101
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রলার ডুবে ২১ মরদেহ উদ্ধার, হতাহত বৃদ্ধির আশঙ্কা !
এভাবেই নদী থেকে মরদেহ গুলো উদ্ধার করছে স্থানীয় ও উদ্ধার কর্মিরা।

মিনহাজ তানভীরঃ শুক্রবার ২৭ আগস্ট ২০২১ ইং তারিখ বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলায় লইসকা বিলে বালুবোঝাই ট্রলারের সঙ্গে ধাক্কা লেগে যাত্রীবাহী একটি ট্রলার ডুবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ২১ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এতে আরও হতাহতের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরি দল ও স্থানীয়রা উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছেন। আরও মরদেহ উদ্ধার হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা। আহত ও নিহতদের স্বজনদের খোঁজ নিতে ভিড় করছেন হাসপাতালে। এ পর্যন্ত আটজনের মরদেহ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। আহত ছয় যাত্রীকে উদ্ধার করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
এদিকে একটি মরদেহ পরিবারের লোকজন জোর করে হাসপাতাল থেকে নিয়ে যায়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে নিহতের স্বজনদের ধস্তাধস্তিও হয়।এ সময় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করে বলা হয়, কোনো রকম বিশৃঙ্খল পরিবেশ যাতে সৃষ্টি না হয়। এছাড়া নিহতদের পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ হস্তান্তর করা হবে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আবু সাঈদ শামীম বলেন, হাসপাতালের পরিবেশ শান্ত রাখতে আমরা চেষ্টা করছি। মরদেহগুলো শনাক্তে স্বজনদের খোঁজ করা হচ্ছে। মরদেহের মধ্যে ১০ জন নারী ও ৭ জন শিশুকে শনাক্ত করা গেছে বলে জানিয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ডিসি হায়াত-উদ-দৌলা খাঁন।

তিনি ঘটনাস্থলে গনমাধ্যমকে জানান, নিহত ব্যক্তিদের পরিবারগুলোকে ২০ হাজার করে টাকা দেওয়া হবে। একইসঙ্গে নৌ দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধান করতে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ এমরানুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে বিজয়নগর উপজেলার চম্পকনগর ঘাট থেকে শতাধিক যাত্রী নিয়ে ট্রলারটি সদর উপজেলার আনন্দবাজার ঘাটের উদ্দেশে রওনা হয়েছিল। এর মধ্যে লইসকা বিল এলাকায় বিপরীত দিকে থেকে আসা একটি বালুবোঝাই ট্রলারের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে তাৎক্ষণিক ট্রলারটি ডুবে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here