নবীগঞ্জে ব্যারিস্টার সুমনের ‘বইতল’ শব্দ নিয়ে তোলপাড়

    0
    8

    নবীগঞ্জ প্রতিনিধি:  ব্যারিস্টার সায়েদুল হক সুমনের ‘বইতল’ শব্দ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ নবীগঞ্জ উপজেলাজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিএনপি নেতাকর্মীরা। শুক্রবার সন্ধ্যা ও রাতে নবীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার পক্ষে পৃথক দুটি প্রচারণা সভায় তিনি ‘বইতল’ শব্দ নিয়ে বিশ্লেষণ করেন।সন্ধ্যায় উপজেলার নতুন বাজার মোড়ে ব্যারিস্টার সুমন অভিযোগ করেন, বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব ছাবির আহমেদ চৌধুরী আওয়ামী লীগের প্রার্থী গোলাম রসুল রাহেল চৌধুরিকে ‘বইতল’ বলে আখ্যা দিয়েছেন।’

    ‘বইতল’ সম্পর্কে  তিনি বলেন, রাহেল নবীগঞ্জ জন্মগ্রহণ করে যদি ‘বইতল’ হয় তাহলে নবীগঞ্জের ওসি, ইউএনও এবং প্রবাসীরাও তো ‘বইতল’।পরবর্তীতে রাত সাড়ে ১২টার দিকে অন্য একটি সভায় বক্তৃতাকালে ব্যারিস্টার সুমন বলেন, রাহেল ‘বইতল’ হলে কানাডার শতভাগ মানুষ ‘বইতল’ এবং যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য ৮০ শতাংশ ‘বইতল’। এ সময় বিএনপি প্রার্থী হওয়ায় বর্তমান মেয়র ছাবির আহমেদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ করেন।

    এ ব্যাপারে ছাবির আহমেদ চৌধুরী বলেন, ‘নির্বাচনী প্রচারণায় কোন ধরণের সমস্যা ছিল না। আওয়ামী লীগ প্রার্থী এবং আমি নিজেদের মতো করে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছিলাম। কিন্তু শুক্রবার ব্যারিস্টার সুমন নবীগঞ্জ পৌরসভায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণায় এসে নির্বাচনের মাঠ উত্তপ্ত করার চেষ্টা করছেন। তিনি আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে এবং অশ্লিল ভাষা ব্যবহার করে ‘ভাইরাল’ হতে চাচ্ছেন।তিনি বলেন, আমি কি অভদ্র নাকি যে আমার প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীকে ‘বইতল’ বলব।

    এছাড়া ব্যারিস্টার সুমন বলেছেন আমি গরু বাজারের টাকা মেরে খেয়েছি। তিনি কি তার অভিযোগের একটারও প্রমাণ দিতে পারবেন?