Thursday 15th of November 2018 02:06:33 AM
Wednesday 24th of October 2018 04:36:50 PM

বিশ্বের সবচেয়ে বড় বার্ন ইনস্টিটিউটের উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

জাতীয়, বিশেষ খবর ডেস্ক
আমার সিলেট ২৪.কম
বিশ্বের সবচেয়ে বড় বার্ন ইনস্টিটিউটের উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

ডেস্ক নিউজঃ বিশ্বের সবচেয়ে বড় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ বুধবার সকালে এ ইনস্টিটিউটের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) ও হাসপাতাল সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত এ প্রতিষ্ঠানটির নামকরণ করা হয়েছে ‘শেখ হাসিনা ন্যাশনাল বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট’।

বার্ন ইনস্টিটিউটটি স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে বলে মনে করছেন সংশ্নিষ্টরা। দগ্ধ রোগীর পাশাপাশি চিকিৎসক, নার্সদের পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধিতে কাজ করবে এ প্রতিষ্ঠানটি। ইনস্টিটিউটের প্রকল্প পরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম সমকালকে বলেন, ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঁচটি শয্যা নিয়ে বার্ন ইউনিটের যাত্রা শুরু হয়েছিল। এর পর ধাপে ধাপে তা ১শ’ শয্যায় রূপান্তরিত হয়।

এখন এটি পাঁচশ’ শয্যার ইনস্টিটিউটে রূপান্তরিত হয়েছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বার্ন চিকিৎসার স্বপ্নদ্রষ্টা ছিলেন। তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে সেই স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নিল। রাজধানীর চানখাঁরপুলে ৯১২ কোটি টাকা ব্যয়ে দুই একর জমিতে ১৮ তলাবিশিষ্ট এই ইনস্টিটিউট নির্মাণ করা হয়েছে। প্রথমে ৫২২ কোটি টাকা ব্যয় নির্ধারণ করা হলেও পরে তা বৃদ্ধি পেয়ে ৯১২ কোটি টাকায় দাঁড়ায়। এই ইনস্টিটিউটে বার্ন ইউনিট, প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিট এবং একাডেমিক উইং মিলে তিনটি ব্লক থাকছে।

রোগীর চিকিৎসার জন্য রয়েছে ৫০০ শয্যা। এ ছাড়া গুরুতর অসুস্থ রোগীদের চিকিৎসার জন্য ইন্টেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) ২২টি শয্যা রয়েছে। রোগীর উন্নত চিকিৎসা নিশ্চিত করার জন্য ২২ শয্যাবিশিষ্ট হাই ডেফিসিয়েন্সি ইউনিট (এইচডিইউ), ১২টি অপারেশন থিয়েটার এবং একটি অত্যাধুনিক পোস্ট অপারেটিভ ওয়ার্ড আছে। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে জরুরি চিকিৎসার প্রয়োজনে রোগী নিয়ে আসার জন্য ভবনের ছাদে হেলিপ্যাড সুবিধা রয়েছে।

হাসপাতালের পার্কিংয়ে একসঙ্গে ১৮০টি গাড়ি রাখার ব্যবস্থা রয়েছে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের পুরাতন ভবনের সঙ্গে একটি ফুট ওভারব্রিজ দিয়ে নতুন ভবনের সংযোগ স্থাপন করা হবে। বার্ন ইনস্টিটিউট কর্তৃপক্ষ জানায়, বিভিন্ন দেশ থেকে প্রায় ৩০০ কোটি টাকার চিকিৎসা যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জাম কেনার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

এ ছাড়া প্রায় ২ হাজার ২০০ জনবল নিয়োগের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বিএনপি-জামায়াত জোট ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচন বর্জনের পরই দেশব্যাপী পেট্রোল বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। শত শত মানুষ পেট্রোল বোমায় হতাহত হয়। দেশের বিভিন্ন স্থানে পেট্রোল বোমায় আহত হয়ে ঢাকায় আনার পথেই অনেকের মৃত্যু হয়েছে। আবার অনেকে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হলেও চিকিৎসা না পেয়ে মৃত্যুবরণ করে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে শয্যার তুলনায় কয়েক গুণ রোগী ভর্তি থাকায় সেখানেও সংকুলান করতে হিমশিম খেতে হয় কর্তৃপক্ষকে। এ অবস্থায় সরকার দেশে একটি পূর্ণাঙ্গ বার্ন ইনস্টিটিউট স্থাপনের পরিকল্পনা গ্রহণ করে। ২০১৫ সালের নভেম্বরে একনেক সভায় এই ইনস্টিটিউটের অনুমোদন দেওয় হয়। ২০১৬ সালের এপ্রিলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।সমকাল


সম্পাদনা: News Desk, নিউজরুম এডিটর

আমারসিলেট২৪.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Place for advertisement
Place for advertisement

সর্বশেষ সংবাদ


সর্বাধিক পঠিত

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc