Saturday 19th of September 2020 02:52:58 PM
Sunday 27th of December 2015 05:05:02 PM

বিভ্রান্তিকর তথ্যের অভিযোগে খালেদার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা

আইন-আদালত ডেস্ক
আমার সিলেট ২৪.কম
বিভ্রান্তিকর তথ্যের অভিযোগে খালেদার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা

আমার সিলেট টুয়েন্টি ফোর ডটকম,২৭ডিসেম্বরমুক্তিযুদ্ধে নিহতের সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য দেয়ার অভিযোগে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হয়েছে।

ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে আজ রোববার সকালে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি মশিউর মালেক বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। বাদীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম আতিকুর রহমান ফৌজদারি কার্যবিধির ২০০ ধারা অনুযায়ী জবানবন্দি নেন। তবে বিচারক কোনো আদেশ দেননি।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ২১ ডিসেম্বর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেন, ‘আজকে বলা হয় এত লাখ শহীদ হয়েছে, এটা নিয়েও অনেক বিতর্ক আছে।’

ওই বক্তব্যে খালেদা জিয়া আরো বলেন, ‘তিনি (বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান) বাংলাদেশের স্বাধীনতা চাননি। তিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছিলেন। জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা না দিলে মুক্তিযুদ্ধ হতো না।’

বিএনপির চেয়ারপারসনের ওই বক্তব্য পরদিন বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রচার হয়। বিষয়টির উল্লেখ করে বাদী বলেন, আসামির এ ধরনের বক্তব্য শহীদদের অবমাননাসহ বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ সৃষ্টি ও এর ইতিহাসের বিরুদ্ধে নিন্দাবাদ, ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচারের অপরাধের শামিল। এ ধরনের বক্তব্য রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে সরকারি কোনো রেকর্ড নাই। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের একটি সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে শহীদের সংখ্যা ত্রিশ লক্ষ প্রমাণিত হয় না। এর সংখ্যা বেশি বা কম হতে পারে। সঠিক সংখ্যা নিরূপনে একটি গণজরিপ দরকার।‘

মুক্তিযুদ্ধে নিহতের সংখ্যা নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য দেয়ার অভিযোগে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হয়েছে।

ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে আজ (রোববার) সকালে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সভাপতি মশিউর মালেক বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। বাদীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম আতিকুর রহমান ফৌজদারি কার্যবিধির ২০০ ধারা অনুযায়ী জবানবন্দি নেন। তবে বিচারক কোনো আদেশ দেননি।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ২১ ডিসেম্বর রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেন, ‘আজকে বলা হয় এত লাখ শহীদ হয়েছে, এটা নিয়েও অনেক বিতর্ক আছে।’

ওই বক্তব্যে খালেদা জিয়া আরো বলেন, ‘তিনি (বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান) বাংলাদেশের স্বাধীনতা চাননি। তিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছিলেন। জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা না দিলে মুক্তিযুদ্ধ হতো না।’

বিএনপির চেয়ারপারসনের ওই বক্তব্য পরদিন বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রচার হয়। বিষয়টির উল্লেখ করে বাদী বলেন, আসামির এ ধরনের বক্তব্য শহীদদের অবমাননাসহ বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ সৃষ্টি ও এর ইতিহাসের বিরুদ্ধে নিন্দাবাদ, ষড়যন্ত্র ও অপপ্রচারের অপরাধের শামিল। এ ধরনের বক্তব্য রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র।


সম্পাদনা: News Desk, নিউজরুম এডিটর

আমারসিলেট২৪.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Place for advertisement
Place for advertisement

সর্বশেষ সংবাদ


সর্বাধিক পঠিত

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc