বিডিআর হত্যাকাণ্ড মামলার রায় আগামী বুধবার

    0
    128

    আমার সিলেট  24 ডটকম,অক্টোবরপিলখানায় বিডিআর (বর্তমান বিজিবি) হত্যাকাণ্ড মামলার রায় আগামী  বুধবার ঘোষণা করা হবে। গত ২০ অক্টোবর বিচারিক প্রক্রিয়ার শেষ ধাপ যুক্তিতর্ক (আর্গুমেন্ট) উপস্থাপন শেষে ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ ড. মো. আকতারুজ্জামান এ দিন নির্ধারণ করেন। ২০০৯ সালের ২৫ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি পিলখানা হত্যাযজ্ঞে ৫৭ সেনা কর্মকর্তাসহ ৭৪ জন নিহত হন।

    ইতিহাসের ঘৃণ্যতম এ নৃশংস হত্যাকাণ্ডের  প্রায় ৪ বছর ৮ মাস পর হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হবে। ঘটনার সময় ৪ বর্গকিলোমিটার এলাকা জুড়ে অবস্থিত পিলখানায় ৬ হাজার ৯০৩ জন বিডিআর সদস্য কর্মরত ছিলেন। তবে দরবারে উপস্থিত ছিলেন ৯৭ সেনা কর্মকর্তাসহ ২ হাজার ৪৮৩ জন। মামলায় ৫ হাজার ৯৬৪টি আলামত জব্দ করা হয়।মামলার নথি পর্যালোচনা করে দেখা যায়, পিলখানায় বিডিআর বিদ্রোহের হত্যাকাণ্ডে ২ হাজার ৪১৪টি আগ্নেয়াস্ত্র থেকে ফায়ার করা হয়েছিল। যার মধ্যে ছিল ১ হাজার ৮৪৫টি রাইফেল, ৫২৮টি এসএমসি, ২৩টি পিস্তল ও ১৮টি এলএমজি।

    এ মামলার ১ হাজার ৩৪৫ সাক্ষীর মধ্যে ৬৫৪ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ নেওয়া হয়। ২ হাজার ৩২ কার্যদিবসে ওই ৬৫৪ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত। আদালতে দেওয়া সাক্ষীদের মধ্যে ঘটনার শিকার পরিবারের সদস্য, বিডিআর সদস্য, সাংবাদিক, সাধারণ নাগরিক, অস্ত্র ও মোবাইল ফোনসেট বিশেষজ্ঞ, পুলিশ সদস্য, ফায়ার সার্ভিসের সদস্য, রেডক্রিসেন্ট সদস্য, র‍্যাব সদস্য, জব্দ তালিকা প্রস্তুতকারী দলের সদস্য, ম্যাজিস্ট্রেট, মন্ত্রী, সংসদ সদস্য এবং সে সময়কার বিমান ও নৌ-বাহিনীর প্রধানও রয়েছেন। সাবেক সেনাবাহিনী প্রধান মঈন উ আহমেদ মামলার সাক্ষী থাকলেও আমেরিকা থাকায় তিনি আদালতে সাক্ষ্য দিতে আসেননি।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here