ফরহাদ মজহার কীভাবে গেলেন খতিয়ে দেখছিঃস্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

    0
    10

    আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৫জুলাই,ডেস্ক নিউজঃ ফরহাদ মজহারের বিষয়টা খতিয়ে দেখছি বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, “ফরহাদ মজহার কীভাবে গেলেন, কী নিয়ে বের হয়েছেন, তার সবই আমরা খতিয়ে দেখছি।”
    বুধবার দুপুরে গাজীপুরের টঙ্গী মডেল থানার নতুন ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন মন্ত্রী।

    স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, “পুলিশ বাহিনী ফরহাদ মজহারের মোবাইলফোন নজরদারি করার মাধ্যমে তাকে শনাক্ত করে উদ্ধার করে। পরে তাকে আদালতে নেয়া হয় তার জবানবন্দি নেয়ার জন্য। এ বিষয়ে একটি মামলা হয়েছে। মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দ্রুতই প্রকাশ করা হবে।”

    এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে সংসদ সদস্য জাহিদ আহসান রাসেল, মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি আজমত উল্লা খান, জেলা প্রশাসক দেওয়ান মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীর, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদসহ পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
    দৃষ্টি সরাতেই মজহারকে অপহরণ: ফখরুল
    সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর রায়ের বিষয় থেকে দৃষ্টি সরাতেই কবি ও প্রাবন্ধিক ফরহাদ মজহারের অপহরণের ঘটনা ঘটিয়েছে সরকার বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
    বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ফখরুল এ মন্তব্য করেন।
    ফখরুল বলেন, “ফরহাদ সাহেবের ব্যাপারটা নিয়ে যেটা চলছে, এ রায়টা হলো ষোড়শ সংশোধনীর। তার পরেই কিন্তু ঘটনাটা ঘটল। অর্থাৎ ডাইভারশনটা (মোড়) এটা অনেকটা, এটা হচ্ছে আমাদের স্পেকুলেশনস (জল্পনা)।”
    সাংবাদিকদের তিনি বলেন, “আপনারা যদি না করে থাকেন, জড়িত না থাকেন, সত্যটা বের করেন।”
    এক সাংবাদিকের আরেক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির মহাসচিব বলেন, “কী করবে ভাই? আর বাকি রেখেছে কী? এখন শুধু জানটা নিয়ে নেয়া বাকি। এই তো।”
    ফখরুল বলেন, “৮৬টা মামলা, আপনার ৩৬টা মামলায় চার্জশিট হয়ে গেছে। আপনার মামলায় প্রতিদিন যেতে হয়। আমার নেত্রীকে, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে আজকে প্রতি সপ্তাহে আপনার কোর্টে যেতে হয়। কী অপরাধ তাঁর? কার কাছে বলব? কোথায় যাব?”
    ফরহাদ মজহার অপহরণ মামলা ডিবিতে
    বিশিষ্টি কবি, প্রাবন্ধিক ও রাজনৈতিক ভাষ্যকার ফরহাদ মজহারকে অপহরণের অভিযোগে করা মামলার তদন্ত করতে যাচ্ছে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)।
    ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়ার আদেশে মামলাটি বুধবার আদাবর থানা থেকে ডিবির কাছে হস্তান্তর করা হবে।
    পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) বিপ্লব কুমার সরকার বুধবার দুপুরে বলেন, “ফরহাদ মজহারকে অপহরণের অভিযোগে হওয়া মামলাটি ডিবির কাছে হস্তান্তরের জন্য গতকাল মঙ্গলবার ডিএমপির কমিশনার মহোদয় আদেশ দিয়েছেন। মামলাটি ডিবির কাছে হস্তান্তরের জন্য তদন্ত কর্মকর্তাকে বলা হয়েছে।”
    এদিকে, ফরহাদ মাজহারকে কারা-কিভাবে তুলে গিয়েছিল, সে প্রশ্নের কোনো উত্তর এখনো মেলেনি।
    পুলিশ তাকে যশোর থেকে উদ্ধারের পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঢাকায় ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে আসে মঙ্গলবার সকালেই। সেখান থেকে নিয়ে যায় আদালতে।
    সেখানে এই অপহরণ রহস্যের ব্যাপারে তার একটি জবানবন্দী নেয়া হয়। এরপর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে তিনি বাড়ি ফিরে গেছেন। নতুন বার্তা

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here