Thursday 22nd of October 2020 06:41:02 PM
Friday 18th of September 2020 03:33:55 PM

প্রেমের টানে ভারতীয় তরুণী এখন সিলেটের দোয়ারাবাজারে

অপরাধ জগত, আন্তর্জাতিক, বৃহত্তর সিলেট ডেস্ক
আমার সিলেট ২৪.কম
প্রেমের টানে ভারতীয় তরুণী এখন সিলেটের দোয়ারাবাজারে

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ প্রেমের টানে কাঁটাতারের বাধাঁ অতিক্রম করে বাংলাদেশে সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের উত্তর কলাউড়া গ্রামের আব্দুস সাত্তার (২৭) এর বাড়িতে এসেছে মঞ্জুরা বেগম (২০) নামে ভারতের এক তরুনী। তিনি ভারতের আসাম প্রদেশের কামরুক জেলার চাংসারি থানার টাপার পাথার গ্রামের মুগুর আলির কন্যা।
কিন্তু কাঁটাতারের সীমানা বাধা হয়ে দাঁড়াল তাঁদের জীবনে। বিনা পাসপোর্টে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের দায়ে বুধবার (১৬,০৯,২০২০) দুপুর খবর পেয়ে বিজিবি মঞ্জুরা বেগমকে আটক করে। পরে বিজিবি মঞ্জুরার নামে বিনা পাসপোর্ট ও অনুমতি ছাড়া বাংলাদেশে প্রবেশ করার অপরাধে মামলা দিয়ে বুধবার রাতে দোয়ারাবাজার থানায় হস্তান্তর করেন।
বাংলাদেশে বিনা অনুমতিতে পাসপোর্ট ছাড়া অবৈধ ভাবে প্রবেশ করায় একটি মামলা দায়ের করেছে।  মামলা নং- ৮ তারিখ ১৬/৯/২০২০।
জানা যায়,গত পাচ বছর পুর্বে মামলায় আসামি হয়ে বাংলাদেশ থেকে পালিয়ে ভারতের আসামে গিয়েছিল সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের উত্তর কলাউড়া গ্রামের আবুল কাশেমের পুত্র আব্দুস সাত্তার (২৭)। সেখানে সাত্তারের সঙ্গে পরিচয় হয় ভারতের আসাম প্রদেশের কামরুক জেলার চাংসারি থানার টাপার পাথার গ্রামের মুগুর আলির কন্যা মঞ্জুরা বেগমের। গড়ে ওঠে তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক। সাত্তার দেশে ফিরে আসার পর মোবাইল/ইমো ও ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে চলে তাদের প্রেমর সম্পর্ক। দীর্ঘ ৫বছর পর প্রেমের টানে মঞ্জুরা বেগম ছুটে এসেছেন বাংলাদেশে।
স্থানীয়রা জানান,সুনামগঞ্জ জেলার দোয়ারাবাজার উপজেলার বাংলাবাজার ইউনিয়নের উত্তর কলাউড়া গ্রামের আবুল কাশেমের পুত্র আব্দুস সাত্তার ৫বছর আগে তার এক বন্ধুর প্রেম সহযোগিতা করায় সেই সংক্রান্ত মামলায় আসামী হন। সে মামলায় তার বন্ধু জেল খাটে আর সে পালিয়ে চলে যায় ভারতের  আসাম সেখানে প্রায় বছর খানেক বসবাস করায় মঞ্জুরা বেগমের সাথে সম্পর্ক গড়ে তার। বছর খানেক পরে সাত্তার চলে আসে বাংলাদেশে। দেশে আসার পর সে বাহরাইন দেশে চলে যায়। বাহরাইন দেশে আছে প্রায় ৩বছর যাবত। এরমধ্যে দুইজনের প্রেমের সম্পর্ক চলতে থাকে।
ইদানীং মঞ্জুরা বেগমের বিয়ের জন্য প্রায় কয়েক জায়গা থেকে বিয়ের প্রস্তাব আসে। এবিষয়ে মঞ্জুরা সাত্তারকে জানায়। সাত্তারকে জানালে সাত্তার মঞ্জুরাকে তার বাড়ীতে বাংলাদেশে আসার ঠিকানা দেয়।  সেই ঠিকানা অনুযায়ী গত মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে বাংলাদেশে চলে আসেন ওই ভারতীয় তরুণী।
সাত্তারের ছোট ভাই ইমরান বর্ডার থেকে রিসিভ করে বাড়ি নিয়ে আসে। পরে মঞ্জুরা বেগমের সম্মতিক্রমে মোবাইলে বাহরাইনে অবস্থানরত সাত্তারের সাথে বিবাহের কাজ সম্পন্ন হয়। কিন্তু কাঁটাতারের সীমানা বাধা হয়ে দাঁড়াল তাঁদের জীবনে। বিনা পাসপোর্টে সীমান্ত পাড়ি দেওয়ার দায়ে বোধবার দুপুর খবর পেয়ে বিজিবি আটক করে মঞ্জুরা বেগমকে। বিজিবি মঞ্জুরার নামে বিনা পাসপোর্ট ও অনুমতি ছাড়া দেশে প্রবেশ করার কারণে দোয়ারা থানায় একটি মামলা দিয়ে বুধবার রাতে দোয়ারাবাজার থানায় হস্তান্তর করেন।
দোয়ারাবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ নাজির আলম সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিজিবি একটি মামলা দায়ের করেছে। মামলা অনুযায়ী আমরা তাকে আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকালে কোর্টে সোপর্দ করব।

সম্পাদনা: News Desk, নিউজরুম এডিটর

আমারসিলেট২৪.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Place for advertisement
Place for advertisement

সর্বশেষ সংবাদ


সর্বাধিক পঠিত

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc