প্রতিবাদ করা জনগণের মৌলিক অধিকার : মির্জা ফখরুল

    0
    6

    ঢাকা, ৩১ মে : বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, গণতন্ত্রে হরতাল বন্ধ করার কোনো আইন নেই। আইন করে হরতাল বন্ধ করা যাবে না। সরকার যখন অগণতান্ত্রিক আচরণ করে তখন জনগণ হরতাল-অবরোধ দিয়ে এর প্রতিবাদ জানায়। আর প্রতিবাদ করা জনগণের মৌলিক অধিকার। আজ শুক্রবার সকালে উত্তরার বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মন্তব্য সম্পর্কে ফখরুল এসব কথা বলেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য বাস্তবতার সঙ্গে মিল নেই এমন মন্তব্য করে ফখরুল বলেন, তার কথায় রাজনৈতিক উত্তেজনা বেড়ে যায়। রাজনীতিতে মুচলেকা বলতে কোনো শব্দ নেই বলেও দাবি করেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব।

    প্রতিবাদ করা জনগণের মৌলিক অধিকার : মির্জা ফখরুল
    প্রতিবাদ করা জনগণের মৌলিক অধিকার : মির্জা ফখরুল

    মির্জা ফখরুল দাবি করেন, গত সাড়ে চার বছরে সরকার তারেক রহমানের একটি মামলাও প্রমাণ করতে পারেনি। তাদের মামলা দেয়ার একটাই উদ্দেশ্য, জিয়া পরিবারের সুনাম ও সম্মান যেন নষ্ট হয়। সরকার আশা জিয়া পরিবার ধ্বংস হয়ে যাক। আলাপ-আলোচনা করে উত্তপ্ত রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিরসন করতে হবে। সরকার দেশকে সংঘাতের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। সরকার জেনে শুনে জনগণকে ভয় দেখিয়ে ত্রাস সৃষ্টি করে ক্ষমতায় থাকতে চায়। আর জনগণকে বিভ্রান্ত করতে সরকার সংলাপ নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন কথা বলছে। তত্ত্বাবধায়ক প্রসঙ্গ ছাড়া সরকারের সঙ্গে আলোচনার প্রশ্নই আসে না।
    বিএনপি সরকারের ফাঁদে পা দিয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বিএনপি তার লক্ষ্যে অবিচল। নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া কোনো নির্বাচন বাংলাদেশের মাটিতে আমরা হতে দেব না। আমরা সেই নির্বাচনে অংশ নেব না। আর কর্মসূচি আগানো পেছানো রাজনীতির অংশ।
    গত বৃহস্পতিবার চট্রগ্রামে এক অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর বলেন, আগামী তিন বছর রাজনীতি করবেন না এমন মুচলেকা নিয়ে তারেক রহমান জামিনে বিদেশে চিকিৎসা নিচ্ছেন। সাম্প্রতিক সময়ে রাজনৈতিক বক্তব্য দিয়ে তিনি জামিনের শর্ত অমান্য করেছেন। অন্য অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, হরতাল বন্ধে আইনের কথা ভাবছে সরকার।

     

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here