পিরোজপুরের মানুষও সাঈদীর রায় কার্যকর চায় : প্রধানমন্ত্রী

    0
    3

    পিরোজপুরের জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে বলেছেন, ‘আপনি এসে দেখে যান, আপনার প্রিয় যুদ্ধাপরাধী সাঈদীর বাড়ির মানুষও রায় কার্যকর হোক, এটা চায়।’
    গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে পিরোজপুর সরকারি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক জনসভায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
    জনসভায় প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত জনতার কাছে জানতে চান, তাঁরা মানবতাবিরোধী অপরাধী দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর ফাঁসির রায় কার্যকর হোক, তা চান কি না। এ সময় জনতা সমস্বরে ‘চাই’, ‘চাই’ বলে জবাব দেন।

    শেখ হাসিনা বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের রক্ষার চেষ্টার জন্য বিরোধীদলীয় নেতার একদিন বিচার হবে। এখন দেশে যখন উন্নয়ন ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচারকাজ চলছে, তখন বিএনপির নেত্রী যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচানোর চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ করেন প্রধানমন্ত্রী।
    জনসভাস্থলে পৌঁছে প্রধানমন্ত্রী পিরোজপুর ও জিয়ানগর উপজেলার সংযোগ রক্ষাকারী বলেশ্বর নদের ওপর শহীদ শেখ ফজলুল হক মণি সেতু, নাজিরপুর উপজেলার বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কলেজ, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজের একাডেমিক ভবন ও ছাত্রীনিবাস, ইন্দুরকানি থানা ভবন, স্বরূপকাঠি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন ভবন, জেলা রেজিস্ট্রি অফিস ভবন, স্বরূপকাঠি সাব-রেজিস্ট্রি অফিস ভবন, জেলা সরকারি গ্রন্থাগার ও ছয়টি প্রাথমিক বিদ্যালয় উদ্বোধন করেন।
    পিরোজপুর জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আকরাম হোসেনের সভাপতিত্বে জনসভায় বক্তব্য দেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু, আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংসদ এ কে এম এ আউয়াল প্রমুখ।
    এর আগে গতকাল দুপুরে প্রধানমন্ত্রী পটুয়াখালীর দশমিনা উপজেলার চর বাঁশবাড়িয়ায় ‘দক্ষিণ উপকূলীয় অঞ্চলে বীজবর্ধন খামার’ প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। এ ছাড়া দুমকিতে পায়রা নদীর ওপর নির্মিতব্য চার লেনবিশিষ্ট লেবুখালী সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। পরে দশমিনার খলিশাখালী এলাকায় জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক জনসভায় বক্তব্য দেন।
    এ সময় শেখ হাসিনা বলেন, একসময় এই দক্ষিণাঞ্চল বাংলাদেশের শস্যভান্ডার ছিল। এখন সেই ঐতিহ্য আর নেই। দক্ষিণাঞ্চলের হারিয়ে যাওয়া ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনা হবে। এর অংশ হিসেবে বাঁশবাড়িয়ায় গড়ে তোলা হচ্ছে দেশের বৃহৎ বীজ উৎপাদন খামার।
    প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসে জনগণের সেবা করতে। বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আপনারা নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে পটুয়াখালীর চারটি আসনেই আমাদের নির্বাচিত করেছেন। এ জন্য আমি আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ। আগামী নির্বাচনেও আমি আপনাদের সমর্থন চাই।’
    পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শাহজাহান মিয়ার সভাপতিত্বে এ সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ, হুইপ আ স ম ফিরোজ, আফজাল হোসেন প্রমুখ।
    এর আগে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই বীজবর্ধন খামার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য হচ্ছে প্রতিকূলতাসহিষ্ণু বীজ উৎপন্ন করা এবং দক্ষিণ উপকূলীয় এলাকার জন্য উপযোগী অন্যান্য শস্যবীজ উৎপাদন। তিনি জানান, ১০৪৪ দশমিক ৩৬ একর জমির এই খামারে দুই হাজার মেট্রিক টন ধারণক্ষমতাসম্পন্ন একটি বীজ প্রক্রিয়াকরণ কেন্দ্র, এক হাজার মেট্রিক টনের একটি আর্দ্রতা প্রতিরোধী বীজাগার, দুই হাজার মেট্রিক টনের একটি আলু সংরক্ষণ হিমাগার, একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, স্কুল, মসজিদ ও স্বাস্থ্যকেন্দ্র নির্মিত হবে।

    Hasina 

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here