পারিবারিক কবরস্থানে সাবেক বিচারপতি আব্দুল হাই’র দাপন

    0
    9
    এস এম সুলতান খান,চুনারুঘাটঃ  বৃহত্তর সিলেটের কৃতি সন্তান সাবেক বিচারপতি ও বাংলাদেশ শ্রম আপীল ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল হাই (৭৫) এর নিজ বাড়ী আইতনে গতকাল ২১ ফেব্রুয়ারী বাদ জোহর  চতুর্থ  নামাজে যানাজা শেষে পারিবারিক কবস্তানে দাপন করা হয়।
    তিনি গত শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ৮টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন। ইন্না লিল্লাহি….রাজিউন)। মৃতু কালে তিনি ত্রী,২ ছেলে, নাতী নাতনিসহ অসংখ্য আত্তীয়স্বজন ও গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।
    নামাজে যানাজায় উপস্থিত ছিলেন, হবিগঞ্জ – ২ এর সাংসদ এডভোকেট আব্দুল মজিদ খান, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিছবাহ্ উদ্দিন সিরাজ, চুনারুঘাট উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল কাদির লস্কর, চুনারুঘাট পৌর মেয়র মোঃ সাইফুল আলম রুবেল, মরহুমের পুত্রদ্বয় – ইঞ্জিনিয়ার আরিফুল হাই রাজিব, ব্যারিস্টার ইমরানুল হাই সজিব, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ রমিজ আলীসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।
    আব্দুল হাই এর কর্ম জীবন  গত ২০১৯ সালের ২৫ জুলাই মহামান্য রাষ্ট্রপতি মোঃ আব্দুল হামিদ এর আদেশক্রমে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আলিয়া মেহের স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বিচারপতি মোঃ আব্দুল হাইকে পুনঃরায় দুই বছর মেয়াদে চুক্তি ভিত্তিক শ্রম আপীল ট্রাইব্যুনাল এর চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ প্রদান করা হয়।
    তিনি হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার ১০ নং মিরাশী ইউনিয়নের আইতন গ্রামের জজবাড়ীতে জন্ম গ্রহন করেন।
    বিচারপতি মোঃ আব্দুল হাই ১৯৮৬ হতে ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত তিন জেলার জেলা ও দায়রা জজ ছিলেন। ২০০০-২০০১ সালে আইন সচিবের দায়িত্ব পালন করেন।
    উনার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে  চুনারুঘাট উপজেলাবসী । এক বার্তায় তারা মরহুমের আত্নার মাগফেরাত কামনাসহ শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেন।