নড়াইলে শোক সভায় প্রবেশে বাঁধা দেওয়ায় সংবাদ সম্মেলন

    0
    14

    নড়াইল প্রতিনিধিঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদৎ বাষির্কী পালন উপলক্ষে জেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে এক শোক সভা ও দোয়া মাহফিলে ছাত্রলীগের একাংশকে প্রবেশ করতে না দেওয়ার অভিযোগে বিক্ষুদ্ধ ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা সংবাদ সম্মেলন করেছে। রবিবার (১৮ আগষ্ট) দুপুর ১টার দিকে নড়াইল জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন, জেলা ছাত্রলীগের বিগত কমিটির সহ-সভাপতি সজিব বিশ্বাস, হাবিবুল্লাহ হোসেন বিপ্লব, শামীম খন্দকার, জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক চ ল শাহরিয়ার মিম, মেহেদী হাসান বাপ্পি,জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুজ্জমান রোজ ও আল ফাহাদ ফয়সাল। সদ্য বিদায়ী জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি শাহনেওয়াজ অমি, নূর আলম সিদ্দিকী, সপ্নিল সিকদার নীল, সৌরভ হোসেন তনু, এস.এম শাহ পরান, নাজমুসসাকিব, তুফান, আহাদুজ্জামান সোহাগসহ অর্ধশতাধিক ছাত্রলীগের নেতা-কর্মী এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
    বিক্ষুব্ধ নেতৃবৃন্দ বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদৎ বাষির্কী উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে জেলা ছাত্রলীগের আয়োজনে রবিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে শোক সভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এ সময় ছাত্রলীগের অর্ধ শতাধিক ছাত্রলীগ নেতা-কর্মী সভাস্থলে গেলে বর্তমান জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক সমর্থিত একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ তাদের প্রবেশ করতে দেয়নি।
    নেতৃবৃন্দ আরও জানান, ২০১৮ সালের ২৭এপ্রিল কেন্দ্র থেকে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এবং সাধারন সম্পাদকের নাম ঘোষণা করা হয়। পরে নিয়মানুযায়ী ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি এমকি আর কাওকে অন্তভূক্ত না করে সভাপতি/সম্পাদক অগঠনতান্ত্রিক পন্থায় এবং রাতের আধারে লাখ লাখ টাকার বিনিময়ে বিভিন্ন ইউনিট কমিটি করে যাচ্ছে। বর্তমানে নড়াইল জেলা, নড়াইল পৌরসভা, সদর উপজেলা, নড়াইল ভিক্টোরিয়া কলেজ কমিটির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের ৭জনই নেশাগ্রস্থ। এদের মধ্যে কয়েকজন মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত বলেও তারা জানান।
    এদিকে ছাত্রলীগের একাংশকে প্রবেশে বাঁধা দেওয়ার বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আশরাফুজ্জমান মুকুল বলেন, শোক দিবসের অনুষ্ঠানে কাওকে বাঁধা দেওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। অর্ধ শতাধিক ছাত্রলীগ নেতা-কর্মী সভাস্থলে এসে আবার তাদের ইচ্ছামতো বেরিয়ে গেছে। বর্তমান কমিটি এবং অনুষ্ঠানকে বিতর্কিত করার জন্য একটি গ্রুপ সংবাদ সম্মেলন করেছে।
    জানা গেছে, জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আশরাফুজ্জমান মুকুলের সভাপতিত্বে জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন খান নিলু, নড়াইল পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর বিশ্বাস,বাংলাদেশ ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক শামস-ঈ-নোমান ও বেনজির হোসেন নিশি, সাংগঠনিক বরিকুল ইসলাম বাঁধন ও নাজমুল সিদ্দিকী নাজ, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা মোঃ ইমরান শেখ, তানজীব নওশাদ পল্লব, জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক নিলয় রায় বাঁধনসহ অনেকে। এ সময় জেলা আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগের বিপুল সংখ্যক নেতা কর্মি উপস্থিত ছিলেন।