নড়াইলে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ  

    2
    4

    আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,মার্চ,সুজয় কুমার বকসীঃ নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার কুমড়ি গ্রামে যৌতুকের দাবিতে  শিখা বেগম (২২) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ গতকাল মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) সকালে নড়াইল সদর হাসপাতালে মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। এর আগে সোমবার রাতে গৃহবধূকে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ রয়েছে। এ ঘটনায় শিখার শ্বশুরবাড়ির লোকজন পালতক রয়েছে।

    পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, সাত বছর আগে লোহাগড়ার কুমড়ি গ্রামের আবু বক্কর মৃধার ছেলে সাখায়েত মৃধার সাথে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার চরভাটপাড়া গ্রামের সাহেব শেখের মেয়ে শিখার বিয়ে হয়। বিয়ের পর সাখায়েতকে এক লাখ ২০ হাজার টাকা যৌতুক দেওয়া হয়। এরপর বাড়িতে নতুন ঘর বাবদ আবারও যৌতুক দাবি করে সাখায়েত। দাবিকৃত টাকা না দেয়ায় সাখায়েত প্রায়ই শিখাকে নির্যাতন করত। এ নিয়ে সোমবার রাত ১০টার দিকে শিখাকে মারধর করা হয়। মারধরের বিষয়টি শিখা মোবাইল ফোনে তার মা-বাবাকে জানান।

    ফোন করার ঘটনায় সাখায়েত ক্ষিপ্ত হয়ে শিখাকে আবারো মারধর করে। পরে তাকে শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করা হয়। লোহাগড়া থানার এসআই নিমাই চন্দ্র মন্ডল জানান, শিখার শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here