নিহতদের পরিবার ও আহতদের পুনর্বাসন করা হবে : প্রধানমন্ত্রী

    0
    5

    ঢাকা, ২৮ এপ্রিল : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সাভারে নিহতদের পরিবার ও আহতদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা হবে। হতাহতরা যাতে মাসে অন্তত ১০ হাজার টাকা করে পান, আমরা এ ব্যবস্থা করব। আজ রবিবার সকালে রাজধানীর ওসমানি স্মৃতি মিলনায়তনে জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এর আগে তিনি পঙ্গু হাসাপাতালে সাভারে ভবন ধসে আহতদের দেখে আসেন।

    নিহতদের পরিবার ও আহতদের পুনর্বাসন করা হবে : প্রধানমন্ত্রী
    নিহতদের পরিবার ও আহতদের পুনর্বাসন করা হবে : প্রধানমন্ত্রী

    প্রধানমন্ত্রী বলেন, এরই মধ্যে গার্মেন্টস মালিকরা এক হাজার শ্রমিকের দায়িত্ব নিয়েছেন, তাদের চাকরি দেয়া হবে। এত দ্রুত এতো মানুষকে উদ্ধার করার নজির বিশ্বের কোথাও নেই। আমাদের উদ্ধারকর্মীরা মানবতাবোধের জায়গা থেকে এ কাজ করেছেন। উদ্ধারকাজে এগিয়ে আসার জন্য আমার তাদের ধন্যবাদ জানাই। আহত ও নিহতদের জন্য আমরা সবার সহযোগিতার চাই। সাভারে ভবন ধসে দায়ীদের আমরা অপরাধীদের অপরাধী হিসেবে বিবেচনা করব। যে যে দলেরই হোক সেটা বিবেচ্য নয়। আমরা এরই মধ্যে কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছি।
    প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, এ সরকারের আমলে এ পর্যন্ত সরকারি সহায়তায় ৪৮ হাজার ৫৭০ জনকে আইনি সহায়তা দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে সরকারি সহায়তায় ১৯ হাজার ১০টি মামলা নিষ্পত্তি করা হয়েছে। অত্যন্ত স্বচ্ছতার সঙ্গে যুদ্ধাপরাধী ও বিডিআর বিদ্রোহের বিচার করা হচ্ছে। নানাভাবে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। হরতাল দিয়ে মানুষ হত্যা করা হচ্ছে। যত বাধাই আসুক যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বাংলার মাটিতে হবেই। শেখ হাসিনা বলেন, শ্রমিকদের স্বাস্থ্য রক্ষার জন্য, ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার জন্য আলাদাভাবে শ্রমিক সহায়তা সেল চালু করা হবে।
    এর আগে আজ রবিবার সকাল আহতদের দেখতে পঙ্গু হাসপাতালে যান প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রী সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত সেখানে অবস্থানকালে চিকিৎসাধীন ৫৫ জনের শারীরিক অবস্থা ও চিকিৎসার ব্যাপারে খোঁজখবর নেন। এখানে চিকিৎসাধীন চারজনের পা ও দুজনের হাত কাটা পড়েছে। চারজনের কৃত্রিম পা সংযোজনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রী চিকিৎসকদের নির্দেশ দেন। প্রধানমন্ত্রী আহতদের প্রত্যেককে দশ হাজার করে টাকা আর্থিক সহায়তা দেন। একই সঙ্গে তিনি আহতদের শাড়ি এবং লুঙ্গি দেন। প্রধানমন্ত্রী তাদের সবাইকে সুচিকিৎসার নিশ্চায়তা দেন। প্রয়োজনে তাদের দেশের বাইরে পাঠানোর কথাও বলেন প্রধানমন্ত্রী। এ ছাড়া বেশি ক্ষতিগ্রস্ত কয়েকজনকে চাকরি দেয়ার আশ্বাস দেন প্রধানমন্ত্রী। হাসপাতালে প্রায় ঘণ্টাখানেক ছিলেন শেখ হাসিনা। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রী আ ফ ম রুহুল হক, বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের মহাসচিব ইকবাল আর্সেলান, হাসপাতালের পরিচালক আব্দুল আউয়াল রিজভী, সিনিয়র চিকিৎসক রোকেয়া সুলতানা, আব্দুল গণি মোল্লা।
    গত বুধবার ধসে পড়ে সাভার বাসস্ট্যান্ডের নয় তলা ভবন রানা প্লাজা। প্রথমে স্থানীয়রা ধ্বংস্তূপে উদ্ধার অভিযান শুরু করে, পরে সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে ফায়ার সার্ভিসসহ অন্য সংস্থাগুলোর সমন্বিত উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৩৯৫টি মৃতদেহ এবং আড়াই হাজার জীবিত মানুষকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here