নিউজিল্যান্ড ভারতের সাথে দারুণভাবে ড্র করেছে

    0
    2

    আমারসিলেট24ডটকম,ফেব্রুয়ারীঃ ব্রেন্ডন ম্যাককালামের দূর্দান্ত ত্রিশতকের বদৌলতে হারের শঙ্কায় পড়া নিউজিল্যান্ড ভারতের সাথে দারুণভাবে ড্র করেছে ওয়েলিংটন টেস্ট। আর প্রথম টেস্টটি জেতার ফলে ১-০ ব্যবধানে সিরিজ জয়েরও স্বাদ পেয়েছে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। ৬৪৭ মিনিট মাঠে থেকে ৫৫৯ বলে ৩০২ রান করে মাঠ ছাড়েন ক্রিকেট বিশ্বের গ্লাডিয়েটর ম্যাককালাম।
    নিউজিল্যান্ডের ৮৪ বছরের টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে ১ম ক্রিকেটার হিসেবে ত্রিশতক করার পর পুরো বেসিন রিজার্ভ ম্যাককালাম ধ্বনিতে উচ্ছ্বসিত হয়ে ওঠে। এর আগে কিউই ব্যাটসম্যান হিসেবে সর্বোচ্চ রান ছিল সাবেক অধিনায়ক মার্টিন ক্রোর। ১৯৯১ সালে তিনি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২৯৯ রান করেছিলেন।
    ওয়ানডের পর টেস্ট সিরিজেও হার নিয়ে ফিরে যেতে হচ্ছে বিশ্ব ক্রিকেটের নতুন মোড়লদের। ২০০২-০৩ মৌসুমের পর ভারতের বিপক্ষে এবারই প্রথম টেস্ট সিরিজ জিতল নিউজিল্যান্ড।
    ওয়েলিংটন টেস্টে জয় দিয়ে সিরিজে সমতা ফেরানোর আপ্রাণ চেষ্টা করেছিল ভারত। তৃতীয় দিনের মধ্যাহ্নবিরতি পর্যন্তও সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল। মাত্র ৯৪ রানে ৫ উইকেট, তার মধ্যে আবার প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৯২ রান। কিন্তু তারপর শুধু এই ম্যাচের ভাগ্যই নয় ক্রিকেট ইতিহাসেরই অনেক কিছু নতুন করে ওলট-পালট করে দিলেন ম্যাককালাম। বিজে ওয়াটলিংকে সঙ্গে নিয়ে গড়লেন ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে সর্বোচ্চ রানের নতুন রেকর্ড। নিউজিল্যান্ডের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে করলেন ট্রিপল সেঞ্চুরি। দ্বিতীয় ইনিংসে ৯৪ রানেই পাঁচ উইকেট হারানো নিউজিল্যান্ড শেষ পর্যন্ত ইনিংস ঘোষণা করল ৬৮০ রান জমা করে। ভারতের সামনে জয়ের লক্ষ্য নির্ধারিত হলো ৪৩৫ রান। আর সেই সাথে ৩য় ইনিংসের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড যোগ করল কিউইরা। তাছাড়া কিউইদের টেস্ট ইতিহাসে এটিই সর্বোচ্চ স্কোর। তাছাড়া অভিষেক টেস্টেই শতক হাঁকানো জিমি নিশামের কথাটা না বললেই নয়, ১৫৪ বলে ১৩৭ রানের ঝকঝকে এক ইনিংস খেলে শেষ পর্যন্ত অপরাজিতই ছিলেন এই তরুণ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।
    ভারত যখন দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামল তখন দিনের বাকি ছিল ৬৯ ওভার। ধোনি বাহিনীর জয়ের আশা কেউ হয়তো কল্পনাতেও করেননি বরং প্রথম ২৩ ওভারের মধ্যে ভারতের ৩ টি উইকেট তুলে নিয়ে বেকায়দায় ফেলে দিয়েছিল বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের। কিন্তু দিনের বাকিটা সময় আর কোনো দুরবস্থার মধ্যে পড়তে হয়নি ভারতকে। বিরাট কোহলির ৪র্থ টেস্ট শতকের সুবাদে বাকি সময় নির্বিঘ্নেই পার করেছে ধোনি বাহিনী। ৯৭ বলে ৩১ রান করে অপরাজিত রোহিত শর্মা।
    ওয়েলিংটনে ম্যাককালাম বীরত্বগাথায় মুখর হয়ে আছে। সিরিজ জয়ের চেয়েও এটাই এখন সবার সামনে চলে এসেছে। ম্যাককালাম অবশ্য জয়টাকেই বেশি উপভোগ করছেন বেশী। ম্যাচসেরার পুরস্কারটাও স্বাভাবিকভাবেই উঠেছে কিউই অধিনায়কের হাতে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here