নবীগঞ্জে বিস্ফোরণঃআ’লীগ ও বিএনপির সংবাদ সম্মেলন

    0
    9

    নূরুজ্জামান ফারুকী,নবীগঞ্জ থেকেঃ  নবীগঞ্জ পৌর শহরের নতুন বাজার মোড়ে আওয়ামীলীগের পথ সভায় পেট্রোল বোমা হামলার ঘটনা নিয়ে আওয়ামীলীগ ও বিএনপির পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করেছে। গতকাল রোববার রাতে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থীর গোলাম রসুল চৌধুরী রাহেলের বাসায় নবীগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগ সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলন লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নবীগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নিমর্লেন্দু দাশ রানা। তিনি বলেন বঙ্গবন্ধু স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে নবীগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগ ও সকল সহযোগী সংগঠনের আয়োজনে, নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সকল সহযোগী সংগঠনের সর্বস্থরের নেতা কর্মী সমর্থক ও শুভাকাঙ্খীদের সমন্বয়ে একটি আনন্দ র‌্যালী নবীগঞ্জ নতুন বাজার মোড় থেকে শুরু করে নবীগঞ্জ শহরের প্রতিটি প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে বিকাল ৪.৩০ মিনিটের সময় নতুন বাজার মোড়ে এক পথ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

    নবীগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি হাজ্বী মোজাহিদ আহমেদ এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নিমর্লেন্দু দাশ রানার উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত এই পথ সভায় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন যুব মহিলালীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি অধ্যাপিকা অপু উকিল সহ কেন্দ্রীয় আওয়ামী যুবলীগ, হবিগঞ্জ জেলা ও নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ এবং সকল সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। নেতৃবৃন্দ তাদেরবক্তব্য শেষ করারপর সভাপতির বক্তব্যের শেষ প্রান্তে এসে নতুন বাজার মোড়স্থ সভাস্থলে হঠাৎ বিকট আওয়াজ শুনতে পান। এ সময় চারদিক ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে যায়। সভায় আগত নেতা কর্মী এবং পথচারীরা চারদিকে ছুটাছুটি করতে থাকে। এতে বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের ৩ জন কর্মী গুরুতর আহত হন।ঘটনার অবহতির পরে পুলিশসহ আওয়ামীলীগের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ ঘনটনাস্থলে এসে বোমা সদৃস্য কিছু ডিবা ও পেট্রল বোমাকৃতির পেপসির বোতল ঘটনাস্থলে দেখতে পান। যেহেতু স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের এই পথ সভা নবীগঞ্জ পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে নৌকা প্রতিকের সমর্থকদের উপস্থিতিতে এক বিশাল জনসভায় রূপ নেয় এবং তা দেখে আমাদের প্রতিদ্বন্ধি বিএনপি প্রার্থী ও তাদের সমর্থকরা দিশেহারা হয়ে আমাদের সমাবেশস্থলে এ চোরাগুপ্তা বোমা হামলা ঘটাতে পারে বলে আমাদের ধারণা ।
    সংবাদ সম্মেলনে বোমা হামলার জন্য বিএনপি প্রার্থী ও তার সর্মথকদের দায়ী করা হয়।

    এদিকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী বর্তমান মেয়র ছাবির আহমদ চৌধুরী সংবাদ সম্মেলন করেন। তিনি বলেন আওয়ামীলীগের প্রার্থীর লোকজন তার নেতা কর্মীদের ভিবিন্ন রকম হুমকি দিচ্ছেন। পুলিশ দিয়ে হয়রানি করছেন। এখন পর্যন্ত তার বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বোমা হামলাটি সাজানো নাটক বলে অভিহিত করেন।তিনি নির্বাচনী আচরন বিধি লঙ্গন করে চলেছেন। প্রশাসনকে জানানো হয়েছে।কিন্তু কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। আওয়ামীলীগ প্রার্থী নিশ্চিত পরাজয় জেনে নানা রকম ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছেন। পেট্রোল বোমা নিয়ে তিনি বলেন এটা আওয়ামীলীগের নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট করার জন্য একটি ষড়যন্ত্রের পরিকল্পনা। আমরা নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি করছি। আমরা আশা করছি প্রশাসন নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন পরিচালনা করবেন। আওয়ামীলীগ প্রার্থী নিশ্চিত পরাজয় জেনে কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে নির্বাচন পরিবেশ প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন।