নবীগঞ্জে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তিতে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ

0
119
নবীগঞ্জে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তিতে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ
নবীগঞ্জে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তিতে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ

নূরুজ্জামান ফারুকী, বিশেষ প্রতিনিধি: নবীগঞ্জ উপজেলায় এইচএসসিতে ভর্তির নামে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। এতে হিমশিম খেতে হচ্ছে অভিভাবকদের। শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে মনগড়া ভর্তি বাণিজ্যের ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অভিভাবকবৃন্দ। শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের ২০২১-২২ শিক্ষা বর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি নীতিমালায় সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনের ৫ অনুচ্ছেদের ৫.৫-এ উল্লেখ আছে, এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে সেশন চার্জ ও ভর্তি হিসেবে উপজেলা-মফস্বল পর্যায়ে ১৫০০ টাকা গ্রহণ করা যাবে। এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠানসমূহ কোনক্রমেই উন্নয়ন ফি গ্রহণ করতে পারবেনা।

কিন্তু শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের নিয়মনীতিকে তোয়াক্কা না করে দ্বিগুণ ভর্তি ফি গ্রহণের অভিযোগ রয়েছে বিভিন্ন কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। কলেজ সূত্রে জানা যায়- একাদশ শ্রেণিতে ভর্তিতে নবীগঞ্জ উপজেলার রাগীব-রাবেয়া স্কুল এন্ড কলেজে ভর্তি ফি হিসেবে ৩০০০ টাকা, নবীগঞ্জ সরকারি কলেজে ২৫০০ টাকা, আউশকান্দি র.প উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজে ২৫০০ টাকা, ইনাতগঞ্জ কলেজে ২৫০০ টাকা, দিনারপুর কলেজে ২০০০ টাকা গ্রহণ করা হচ্ছে। শিা মন্ত্রনালয়ের নিয়মনীতিকে তোয়াক্কা না করে প্রকাশ্যে অতিরিক্ত ফি আদায় করছে কলেজ কর্তৃপক্ষ। রাসেল নামে ভর্তি হতে ইচ্ছুক শিার্থীর এক অভিভাবক বলেন, কৃষি কাজ করি আর খুব কষ্ট করে সন্তানকে পড়াচ্ছি, তারমধ্যে করোনায় একেবারে আমরা বিপর্যস্ত। উপজেলার পানিউমদা রাগীব-রাবেয়া স্কুল এন্ড কলেজে ভর্তি হতে ৩০০০ টাকা নেওয়া হচ্ছে। এতে অভিভাবক হিসেবে হিমশিম খেতে হচ্ছে। মোছাঃ সাফিয়া নামে এক অভিভাবক বলেন- খুব কষ্টে সন্তানের পড়ালেখা অব্যাহত রেখেছি, কলেজে ভর্তি ফি’র বেশি হওয়ার কারনে এখনো ভর্তি করাতে পারিনি। হাবিবুর রহমান চৌধুরী শামীম নামে এক অভিভাবক বলেন- নবীগঞ্জ সরকারি কলেজে ২৫০০ টাকা দিয়ে ভর্তি করিয়েছি। ফি’টা খুব বেশি মনে হচ্ছে। এ প্রসঙ্গে রাগীব-রাবেয়া স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ এনামুল হকের সাথে যোগাযোগ করা হলে স্বগৌরবে তিনি অতিরিক্ত ফি আদায়ের কথা স্বীকার করে বলেন- ভর্তি ফি’র বিষয়টি খুবই সিক্রেট বলা যাবেনা, আমরা খুব বেশি নিতেছি। কেন অতিরিক্ত নেয়া হচ্ছে জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ে কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের নির্দেশনাকে উপেক্ষা করে স্বগৌরবে অতিরিক্ত ফি আদায়ের বিষয়টি অকপটে স্বীকার করে ক্ষমতার বাহাদুরি দেখাচ্ছেন অধ্যক্ষ এমনটা মনে করছেন সচেতন মহল। এ প্রসঙ্গে নবীগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ছাদেক হোসেন বলেন, সরকারি নীতিমালার বাহিরে অতিরিক্ত ফি আদায়ের সুযোগ নেই, অবশ্যই এব্যাপারে খোঁজখবর নিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহি উদ্দিন বলেন- বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কেন অতিরিক্ত ভর্তি ফি আদায় করা হচ্ছে, এ বিষয়ে যাথাযথ কর্র্তৃপক্ষ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। এ প্রসঙ্গে হবিগঞ্জ জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল্লাহ বলেন- সরকারি নির্দেশনা অমান্য করে যদি অতিরিক্ত ফি আদায় করা হয়, বিষয়টি খোঁজ-খবর নিয়ে সরকারি বিধি অনুযায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের অনিক ও আপিল কর্মকর্তা ড. সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন- এ বিষয়ে চেয়ারম্যান মহোদয়ের সাথে আলাপ করে অবশ্যই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here