দ্বিতীয় দফায় ইলিয়াছি তাবলীগের ৪৯তম ইজতেমা শুরু

    1
    5

    “১৯৬৭ সাল থেকে  ভারতের মাওলানা ইলিয়াছ মেওয়াতির  স্বপ্নে প্রাপ্ত ৬ উছুলের তথা কথিত তাবলীগ জামাতের  নামে দেশি-বিদেশের তাবলীগী মুসল্লীদের উপস্থিতিতে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এর আগে ১৯৬৬ সালে টঙ্গির পাগার এলাকায় বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয় বলে জানা যায়”

    আমারসিলেট24ডটকম,৩১জানুয়ারীঃ আজ শুক্রবার তুরাগ নদীর তীরে দ্বিতীয় দফায় ইলিয়াছি তাবলীগের ৪৯তম ইজতেমা শুরু হয়েছে।ইজতেমার প্রথম পর্ব থেকে দ্বিতীয় পর্বে নিরাপত্তা ব্যবস্থা বেশী জোরদার করা হয়েছে।  জুমার নামাজ চলাকালে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে যানচলাচল স্থবির হয়ে যায়।
    আগামী ২ ফেব্রুয়ারি রোববার দুপুরে আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে ৪৯তম বিশ্ব ইজতেমার ২য় পর্ব। টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরবর্তী বিস্তীর্ণ প্রান্তে তাবলীগী  মুসল্লিদের সমাগমে বর্তমানে এক  লোকে লোকারণ্য পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। তাবলীগী  মুসল্লিদের এবাদতবন্দেগি-জিকির আসকারে টঙ্গীর তুরাগ তীর এখন যেন এক মানুষের নগরীতে রূপলাভ করেছে।
    টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা উপলক্ষে সরকার সর্বোচ্চ নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। নিরাপত্তারক্ষায় প্রায় ১২ হাজারের বেশি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য নিয়োজিত রয়েছেন। ৮টি ভ্রাম্যমাণ আদালত দুই শিফটে ২৪ ঘণ্টা ইজতেমা ময়দানে কাজ করছে।
    বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নির্মিত ৮টি পন্টুন ব্রিজ ব্যবহার করতে পারছেন মুসল্লিরা। অতিরিক্ত ৫টি ট্রান্সফরমার, ৩টি ফিডার ও ৪টি শক্তিশালী জেনারেটর ইজতেমা ময়দানে স্থাপন করা হয়েছে।
    বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে বাংলাদেশের ৩৮টি জেলার তাবলীগী মুসল্লিদের মূল প্যন্ডেলে অবস্থানের জন্য জেলাওয়ারী ৩৮টি খিত্তা রয়েছে।ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব উপলক্ষে মুসল্লিদের নিরাপদ যাতায়াত নিশ্চিত করতে যানবাহন চলাচল ও পার্কিং নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে।
    ইজতেমার প্রথম পর্ব থেকেই সরকারি মেডিক্যাল টিম মুসল্লিদের সার্বক্ষণিক স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে আসছে। এছাড়াও ইজতেমা মাঠের উত্তরে মন্নুনগর এলাকায় ৩০টিসহ প্রায় ৪২ টি ফ্রি-মেডিক্যাল ক্যাম্প স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে যাচ্ছে। সেখানে সার্বক্ষণিক অ্যাম্বুলেন্সও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। মুসল্লিদের জন্য টঙ্গী সরকারি হাসপাতালেও পর্যাপ্ত বিছানার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
    রাজধানী ঢাকার উপকন্ঠে ঐতিহাসিক সোনাভানের শহর টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে ১৬০ একর জমির বিশাল ময়দানে ১৯৬৭ সাল থেকে  ভারতের মাওলানা ইলিয়াছ মেওয়াতির  স্বপ্নে প্রাপ্ত ৬ উছুলের তথা কথিত তাবলীগ জামাতের  নামে দেশি-বিদেশের তাবলীগী মুসল্লীদের উপস্থিতিতে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। এর আগে ১৯৬৬ সালে টঙ্গির পাগার এলাকায় বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয় বলে জানা যায়।
    আগামী রোববার ২য় পর্বের আখেরী মোনাজাতে দেশ- বিদেশের তাবলীগী মুসল্লিরা অংশ নিবেন বলে জানা গেছে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here