Sunday 20th of September 2020 12:34:00 AM
Tuesday 11th of August 2015 01:03:36 AM

দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের বর্ষপূর্তিতে সুধী সমাবেশ

বৃহত্তর সিলেট ডেস্ক
আমার সিলেট ২৪.কম
দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের বর্ষপূর্তিতে সুধী সমাবেশ

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১১আগস্টঃ সত্যিকার অর্থেই এ ছিল এক প্রাণের মেলা। একটি আ লিক দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের তৃতীয় বর্ষপূর্তি আর চতুর্থ বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে শহীদ আবুল হোসেন মিলনায়তনে শনিবার রাতে এক মোহনায় মিলেছিল সকল স্রোতধারা। কবে কখন একমে -এক মিলনায়তনে জেলার ছয় সংসদ সদস্য, সাথে তথ্য সচিব ও প্রশাসনিক উর্দ্ধতনরা এবং জেলার সুধীজন মিলিত হয়েছিলেন, বিস্মৃত অনেকেই। সুনামগঞ্জের খবর এই মিলন মোহনা তৈরিতে সফলতা অর্জন করায় শহীদ আবুল হোসেন মিলনায়তন ভর্তি দর্শকমণ্ডলী এবং পুরো জেলাবাসী আনন্দে উদ্বেলিত হয়েছেন। এই মিলনের মধ্যে সকলেই দেখছেন জেলার আরও উন্নয়নের এক অপার সম্ভাবনা।

ঠিক সাড়ে ছয়টায় অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান, সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ, অ্যাড. শামসুন্নাহার বেগম শাহানা, তথ্যসচিব মরতুজা আহমদ, জেলা প্রশাসক শেখ শফিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) লুৎফর রহমান, দিরাই’র ইউএনও আলতাব হোসেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) বিশ্বজিৎ পাল, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কালাম, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তাদীর আহমদ মুক্তা, ছাত্র লীগের সভাপতি ফজলে রাব্বি স্মরণ, সাধারণ সম্পাদক রফিক আহমদ চৌধুরী প্রমুখ দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের অফিসে আসেন। তাঁদেরকে স্বাগত জানান উপদেষ্টা সম্পাদক অ্যাড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরুসহ পত্রিকা পরিবারের সদস্যরা।

এরপর সন্ধ্যা সোয়া সাতটায় শহীদ আবুল হোসেন মিলনায়তনে দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের সম্পাদক ও প্রকাশক পঙ্কজ কান্তি দে’র সভাপতিত্বে শুরু হয় বর্ষপূর্তির সুধী সমাবেশ।

একে একে মে  আসন গ্রহণ করেন প্রধান অতিথি অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী সজ্জন রাজনীতিক এমএ মান্নান, সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ, সুনামগঞ্জ-মৌলভীবাজার সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. শামসুন্নাহার বেগম শাহানা, তথ্য সচিব মরতুজা আহমদ, জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম, বিজিবি’র অধিনায়ক গোলাম মহিউদ্দিন খন্দকার, সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন, দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের দুই উপদেষ্টা সম্পাদক অ্যাড. স্বপন কুমার দেব ও অ্যাড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু।

অনুষ্ঠান শুরুর অল্প পরেই মে  সম্মানীত অতিথির আসন গ্রহণ করেন ভাটি বাংলার বিশিষ্ট রাজনীতিক, সংবিধান প্রণেতা, বিশিষ্ট পার্লামেন্টারিয়ান, আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান সংসদ সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত।

পবিত্র কোরআন তেলওয়াত ও গীতা পাঠের মাধ্যমে শুরু হয় সুধীসমাবেশের আনুষ্ঠানিকতা। পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন বিশিষ্ট ইসলামি লেখক মাও. এমদাদুল হক। পবিত্র গীতা পাঠ করেন সুনামগঞ্জের খবরের স্টাফ রিপোর্টার অভিজিৎ রায়। পবিত্র ধর্মগ্রন্থ পাঠের পর পত্রিকার বিশেষ সংখ্যার সম্পাদকীয় পাঠ করে শোনান সুনামগঞ্জের খবরের অনলাইন সম্পাদক অ্যাড. মাহবুবুল হাছান শাহীন।

বিচার ও সংসদ বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান সংসদ সদস্য সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত বলেন,‘ফুল ফুটুক আর নাই ফুটুক আজ বসন্ত। আজকের দিনটি সুনামগঞ্জের জন্য বসন্তের মতোই। এই দিনটি একটি মাহেন্দ্রক্ষণ হওয়ার যোগ্য। জেলার মন্ত্রী ও সংসদ সদস্যগণের সাথে একসাথে মিলিত হওয়ার লোভ সংবরণ করতে পারিনি বলেই সুনামগঞ্জের খবরের  ডাকে সাড়া দিয়ে এখানে ছুটে এসেছি। আসুন এই মাহেন্দ্রক্ষণটি একসাথে উদযাপন করি। সুনামগঞ্জের খবর উদ্যোগ নিয়ে আজ যে মিলনক্ষেত্র তৈরি করল তার রেশ ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকুক।’

এভাবেই বর্ষিয়াণ রাজনীতিক নিজের অভিব্যক্তি প্রকাশ করলেন সুনামগঞ্জের খবরের বর্ষপূর্তির সুধী সমাবেশে। তিনি আবেগঘন কণ্ঠে বললেন, ‘বাংলাদেশ আজ ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। পুরো জাতিকে একসাথে এই ক্রান্তিকাল মোকাবিলা করতে হবে।’ সুনামগঞ্জের নানাবিধ সমস্যার কথা বলতে যেয়ে তিনি ধোপাজান, টাঙ্গুয়ার হাওর, জলবায়ু ও শিক্ষায় পিছিয়ে পড়া এমন সব বিষয়ের উল্লেখ করে বলেন, ‘ধোপাজানকে আজ ছিন্নভিন্ন করে ফেলা হচ্ছে। ৬ এমপি একমত থাকলে এই মহাল থেকে রাজস্ব আহরণের পাশাপশি একে রক্ষা করা সম্ভব। টাঙ্গুয়ার হাওরে এখন মাছের প্রজনন হয় না, এখন শুধু লুটপাট হয়। এটাকে বাঁচাতে হবে।’  সুনামগঞ্জে রেলপথ সম্প্রসারণ বিষয়ে সুরঞ্জিত বলেন, ‘স্বল্প সময়ের মন্ত্রী থাকাকালে আমি উদ্যোগ নিয়েছিলাম। তখন জমি অধিগ্রহণের জন্য ৫ শ’ কোটি টাকার প্রকল্প দাখিল করা হয়।  আমি বলেছিলাম, সুনামগঞ্জের মানুষ নিজেদের উন্নয়নের স্বার্থে এমনিতেই জমি দিবে। এখানে কোন টাকা লাগবে না। আমি সময় পাইনি। এখন যদি অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী উদ্যোগ নেন তাহলে আমি তাঁকে সকল ধরনের সহযোগিতা করব।’ প্রতিমন্ত্রী এম.এ মান্নান সম্পর্কে সুরঞ্জিত বলেন, ‘আমার অনুজপ্রতীম এই মন্ত্রী আমার প্রিয় মানুষ। তিনি ভাল মানুষ। সববিষয়ে তাঁকে সহযোগিতা করতে আমরা রাজী আছি। জেলার সব এমপি এক হয়ে প্রধানমন্ত্রীকে বললে তিনি নিশ্চয়ই আমাদের কথা ফেলবেন না।’ সুনামগঞ্জে হাওর উন্নয়ন র্ব্ডো গঠন করে হাওরে বিরাজিত সমস্যাদির সমাধানের আহ্বান জানান তিনি।

অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন,‘সকল বক্তার কথা শুনলাম। তাঁদের মাধ্যমে অনেক বিষয় অবহিত হলাম। সরকার উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। মেধা ও মানসিক উৎকর্ষতা সাধনে আওয়ামী লীগ কাজ করছে। আমরা দেশকে মূলধারায় ফিরিয়ে নিতে চাই। হাজার বছরের পরাধীনতার শৃঙ্খল থেকে বাঙালি জাতিকে স্বাধীনতা দিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগ। এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদক্ষ নেতৃত্বে আত্মপরিচয় প্রতিষ্ঠা ও উন্নয়নসহ দেশকে মধ্যম থেকে উচ্চ আয়ের দেশে পরিণত করতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।   এ কাজে দলমত নির্বিশেষে সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন।’ প্রায় অভিন্ন জাতি, ভাষা ও সংস্কৃতির বাংলাদেশকে পারিবারিক রাষ্ট্র উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা একে অন্যের উষ্ণতা নিয়ে বাঁচতে চাই।’ এমএ মান্নান আরও বলেন, ‘জেলার সকল সংসদ সদস্যগণ আজ যেভাবে এক মে  মিলিত হয়েছেন তাতে আশাবাদ জাগ্রত হয়েছে, আমি সকলকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানাই। আমি আমার সাধ্যমত চেষ্টা করব জেলার উন্নয়নে ভূমিকা রাখার।’

দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের তৃতীয় বর্ষপূর্তি উপলক্ষে পত্রিকার সম্পাদক, উপদেষ্টা সম্পাদক ও সাংবাদিকবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে সামনের দিনে আরও বস্তুনিষ্ঠভাবে দায়িত্ব পালনের আহ্বান জানান তিনি। পত্রিকাটি এখনও শিশু কিন্তু প্রতিভাবান । এই পত্রিকাকে সবধরনের সহযোগিতা প্রদানের জন্য আমি প্রশাসনিক কর্তৃপক্ষ সহ সকলের প্রতি আহ্বান জানাই।’

বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন, সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ, সুনামগঞ্জ-মৌলভীবাজার সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. শামসুন্নাহার বেগম শাহানা, তথ্য সচিব মরতুজা আহমদ, জেলা প্রশাসক শেখ রফিকুল ইসলাম, দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের দুই উপদেষ্টা সম্পাদক অ্যাড. স্বপন কুমার দেব ও অ্যাড. বজলুল মজিদ চৌধুরী খসরু।

দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের সম্পাদক ও প্রকাশক পঙ্কজ কান্তি দে স্বাগত বক্তব্যে পত্রিকা প্রকাশনায় আন্তরিক সহায়তা প্রদানের জন্য প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান, তথ্যসচিব মরতুজা আহমদ, পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সদস্য ড. মোহাম্মদ সাদিক ও অন্যদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। সকল সংসদ সদস্যবৃন্দ, প্রশাসনিক কর্মকর্তাগণসহ জেলার সুধীজনদের প্রতি তিনি সভায় উপস্থিত হওয়ার জন্য কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি বলেন, ‘আগস্ট বাঙালি জাতির জন্য শোকের মাস। এই মাসে নির্মম ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করেছিল। পুরো পৃথিবীতে এরকম বর্বরতা-নৃশংসতার দৃষ্টান্ত নেই। আমরাও আজ গভীরভাবে শোকাহত।’ শোকের মাসে তাই পত্রিকার বর্ষপূর্তিতে বর্ণাঢ্য কিংবা আড়ম্ভরপূর্ণ আয়োজন এমনকি কেককাটা কর্মসূচী পর্যন্ত  রাখা হয়নি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু যে আদর্শ অন্তরে লালন করতেন আমরা সেই আদর্শ অর্থাৎ গণমানুষের স্বার্থ সংরক্ষণের বিষয়টিকে প্রাধান্য দিয়ে পত্রিকার প্রকাশনা চালিয়ে যাচ্ছি। চলার পথে অনেক বিরোধিতা এসেছে। সুধীজনদের সদয় সহযোগিতা দিয়েই এইসব বিরোধিতা মোকাবিলা করে আমরা তিনবছর অতিক্রম করেছি। এই সহযোগিতা নিয়েই সামনের দিনে এগিয়ে যেতে চাই।’ তিনি মুদ্রক প্রতিষ্ঠান অক্ষর মুদ্রণের চেয়ারম্যান পারভেজ আহমদ চৌধুরী ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোজাম্মেল হক চৌধুরী মুনিমসহ জড়িত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

স্বাগত বক্তব্যের পর গণমাধ্যমকর্মীদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক খলিল রহমান ও অ্যাড. আইনুল ইসলাম বাবলু। তাঁরা জেলায় কোন নিয়মিত দৈনিক না থাকার প্রেক্ষাপটে বিগত তিন বছর ধরে দৈনিক সুনামগঞ্জের খবর প্রকাশনা সাহসের সাথে অব্যাহত রাখার কৃতিত্বের জন্য সম্পাদককে ধন্যবাদ জানান।

পুরো অনুষ্ঠানটি স ালনা করেন দৈনিক সুনামগঞ্জের খবরের সহকারী সম্পাদক অ্যাড. এনাম আহমদ।

সুধী সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি অ্যাড. আপ্তাব উদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) লুৎফুর রহমান, র‌্যাব-৯ সুনামগঞ্জ এর অধিনায়ক মেজর আব্দুল্লাহ আল মামুন, লেখক অ্যাড. হোসেন তওফিক চৌধুরী, বিশিষ্ট আইনজীবী হুমায়ুন মঞ্জুর চৌধুরী, সুরেশ দাস, আলী আমজাদ, সৈয়দ সামছুল ইসলাম ও রোকেস লেইস, নারী নেত্রী শীলা রায়, গৌরী ভট্টাচার্য, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়াম্যান আবুল কালাম, এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী ইকবাল আহমদ, দিরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আলতাব হোসেন, জেলা নাগরিক পরিষদের আহবায়ক রমেন্দ্র কুমার দে মিন্টু, ডা. সৈয়দ মনোয়ার আলী, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নূরুল মোমেন, লেখক-কলামনিস্ট সুখেন্দু সেন হারু, অ্যাড. ফুল কুমার দাস তালুকদার, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড. নান্টু রায়, হায়দার চৌধুরী লিটন, সুবির তালুকদার বাপ্টু, সিরাজুর রহমান সিরাজ, দেওয়ান এমদাদ রেজা চৌধুরী, করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল, জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. সামছুল আবেদীন, আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাড. ড. খায়রুল কবির রুমেন, অ্যাড. নজরুল ইসলাম শেফু, ফজলুল হক, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি রমা দাস, শংকর দাস, দৈনিক সুনামকণ্ঠ সম্পাদক বিজন সেন রায়, সমাজসেবক দেওয়ান গণিউল সালাদীন, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তাদির আহমদ মুক্তা, অ্যাড. বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী, অ্যাড. গৌরাঙ্গ পদ দাস, অ্যাড. রতন রায়, সহকারি অধ্যাপক শাহ আবু নাসের, সুনামগঞ্জ পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র নূরুল ইসলাম বজলু, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক লতিফুর রহমান রাজু, সুনাগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বদরুল কাদির শিহাব, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সীমা রানী বিশ্বাস, আওয়ামী লীগ নেতা আমির হোসেন রেজা, জসিম উদ্দিন দিলীপ, জীতেন্দ্র তালুকদার পিন্টু, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফজলে রাব্বী স্মরণ, সাধারণ সম্পাদক রফিক আহমেদ চৌধুরী প্রমুখ। এছাড়া সুধী সমাবেশে মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী, নারী নেত্রী, সংস্কৃতিকর্মীসহ শহরের নানা পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।  (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)


সম্পাদনা: News Desk, নিউজরুম এডিটর

আমারসিলেট২৪.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Place for advertisement
Place for advertisement

সর্বশেষ সংবাদ


সর্বাধিক পঠিত

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc