দেশ থেকে হারিয়ে যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী বৈশাখী মেলা

    0
    13

    আমার সিলেট টুয়েন্টি ফোর ডটকম,১৬এপ্রিল,শংকর শীল,হবিগঞ্জ থেকেঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাটসহ সারা দেশ থেকে কালের আবর্তনে হারিয়ে যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী বৈশাখী মেলা। এ মেলা বহু কাল থেকে কালান্তরে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের নিয়ম অনুযায়ী পহেলা বৈশাখের দিনে বিশাল এক মেলা অনুষ্ঠিত হয়। মেলায় বিভিন্ন স্হান থেকে বিক্রেতা ও ক্রেতারা এসে অংশ গ্রহণ করেন। বর্তমানে জায়গার অভাবে বহু কালের ঐতিহ্যবাহী এই মেলার ঐতিহ্যে এখন হারিয়ে যেতে চলছে। ১৫ এপ্রিল শনিবার চুনারুঘাট পৌর শহর নিয়ে বিশাল মেলা (বান্নী) হয়েছে।

    এ মেলায় লক্ষ লক্ষ মানুষের উপস্থিতি হয়। এ মেলায় ছোট বাচ্চা ও শিশুদের আনন্দ দেওয়ার জন্য নাগরদোলা ও রঙ বেরঙের খেলনা সামগ্রী, চারুকারু, কাঠের তৈরি আসবাপএ, বাঁশ ও বেতের তৈরি নানান সৌখিন জিনিসপএ, কৃষি যন্ত্রপাতি, লাঙল, জোয়ার মই ইত্যাদি। কুমারদের তৈরি মাটির বিভিন্ন ধরনের ব্যবহারের তৈজসপত্র ও মাটির পুতুল, সিংহ, বাঘ, ঘোড়া, হাতি, হরিণ, খরগোশ, ঠুলিমুছি, টাকা রাখার ব্যাংক ও মূর্তি ইত্যাদি।

    মাছ ধরার জাল, রমনীদের কসমেটিকস সামগ্রী,খই – উখড়া, তিললাই -বাতাসা, তরমুজ, দই – টকদই সহ বিভিন্ন রকমের আইটেম নিয়ে হাজির হয়েছেন। বিক্রেতাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, মানুষের উপস্থিতি থাকলেও বেচাকেনার চাহিদা কম। কারণ উপজেলার ছোট বড় বিভিন্ন হাটবাজারে মেলা হয়। সেই হিসেবে উপজেলা সহ বিভিন্ন স্হানের মানুষের আনাগোনা কমে গেছে।

    ফলে হারিয়ে যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী এই মেলার ঐতিহ্যে। এব্যাপারে চুনারুঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সিরাজাম মুনিরা জানান, বিশেষ করেজায়গার সমস্যা, বিশেষ বাসাবাড়ি নির্মাণ, ধানের জমি থাকায় মেলা বসতে পারেন না। ফলে মেলা এখন পৌর শহরে।

    এদিকে উপজেলায় পুরো বৈশাখ মাস জুড়েই চলবে বিভিন্ন স্হানে বৈশাখী মেলা। উপজেলা প্রশাসন বৈশাখের মেলা কে ঘিরে গ্রহণ করছেন বিভিন্ন পদক্ষেপ।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here