দেশে ফিরেই নতুন দল ঘোষণা করবেন মওদুদ!

    1
    5

    আমার সিলেট  24 ডটকম,২১অক্টোবর ‘তৃণমূল বিএনপি’ নামে নতুন দল হচ্ছে-এমন গুঞ্জন চলছে দেশের রাজনৈতিক মহলে। সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় এটি গড়ছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ। লন্ডন থেকে ফিরেই এ বিষয়ে একটা ঘোষণা দেবেন তিনি। এ খবর টি ফেইস বুক থেকে হুবহু নেওয়া হয়েছে।

    সম্প্রতি চিকিৎসার জন্য লন্ডন গেছেন এই মুওদুদ আহমেদ। তার ঘনিষ্ঠ একাধিক সূত্র জানিয়েছে, সেখানে গিয়েই মূলত: নতুন এই দল গঠনের প্রক্রিয়া চূড়ান্ত করছেন তিনি। দেশে ফিরেই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবেন তিনি। আরও শোনা যাচ্ছে, নতুন এই দলে বিএনপি ও আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন ও পদবঞ্চিতরাও গুরুত্ব পাবেন। ব্যারিস্টার মওদুদ বুকে ব্যথা নিয়ে গত রোববার রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি হন। বেশ কিছু দিন ছিলেন এখানেই।

    কিন্তু বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তাকে হাসপাতালে দেখতে যাননি। তখন এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হয় দলটির একাধিক নেতাকে। তারা নাম প্রকাশ না করার অনুরোধে এ প্রতিবেদককে আভাস দিয়ে জানিয়েছিলেন, দল ভাঙ্গার ষড়যন্ত্রে জড়িত মওদুদ আহমেদ। এ কারণে নেত্রী যান নি তাকে দেখতে। মওদুদ ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানায়, বিএনপির কয়েকজন ভাইস চেয়ারম্যানসহ স্থায়ী কমিটি, উপদেষ্টা কাউন্সিল, কেন্দ্রীয় কমিটি ও ঢাকা মহানগর কমিটিরও বেশ কিছু নেতা- তৃণমুল বিএনপিতে যোগ দিচ্ছেন।

    বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ের প্রভাবশালী কয়েক কর্মকর্তাও ‘তৃণমূল বিএনপি’তে থাকছেন বলেও সূত্রটি জানায়।এদিকে তৃনমূল বিএনপি- গড়ার খবরটি শুধু বিএনপির উচ্চ মহলেই নয়, কর্মীপর্যায়েও এ নিয়ে চলছে কানাঘুষা। দল ভাঙার এমন আশঙ্কার কথা প্রকাশ্যে-অপ্রকাশ্যে ব্যক্তও করছেন বিএনপির অনেক নেতা। তারা সতর্ক থাকতে বলছে দলীয় নেতাকর্মী সমর্থকদের।ইউনাইটেড হাসপাতালের নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানায়, মওদুদ আহমদ হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. এমএ মুমিনুজ্জামানের অধীনে চিকিৎসাধীন ছিলেন ইউনাইটেড হাসপাতালে।

    তবে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় তার হূদরোগ ধরা পড়েনি। বুকে সাধারণ ব্যথা ছিল, যা কিছুদিন ওষুধ সেবন ও বিশ্রামেই ভালো হয়ে যায়। হাসপাতালে মওদুদ প্রায় সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন। মওদুদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, অসুস্থ হওয়ার পর ইউনাইটেড হাসপাতালে মওদুদকে দেখতে যান আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা তোফায়েল আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই এলাহী, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনাসহ তার অনেক রাজনৈতিক কর্মী। প্রসঙ্গত, মওদুদ আহমেদ দল পরিবর্তন করেছিলেন এর আগেও। জাতীয় পার্টিতে থাকাকালে এরশাদের উপ-প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তিনি।

    সর্বশেষ তিনি পালন করেন বিএনপি সরকারের আইন মন্ত্রনালয়ের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বও‘তৃণমূল বিএনপি’ নামে নতুন দল হচ্ছে-এমন গুঞ্জন চলছে দেশের রাজনৈতিক মহলে। সরকারি পৃষ্ঠপোষকতায় এটি গড়ছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমেদ। লন্ডন থেকে ফিরেই এ বিষয়ে একটা ঘোষণা দেবেন তিনি। সম্প্রতি চিকিৎসার জন্য লন্ডন গেছেন এই মুওদুদ আহমেদ। তার ঘনিষ্ঠ একাধিক সূত্র জানিয়েছে, সেখানে গিয়েই মূলত: নতুন এই দল গঠনের প্রক্রিয়া চূড়ান্ত করছেন তিনি। দেশে ফিরেই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবেন তিনি।

    আরও শোনা যাচ্ছে, নতুন এই দলে বিএনপি ও আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন ও পদবঞ্চিতরাও গুরুত্ব পাবেন। ব্যারিস্টার মওদুদ বুকে ব্যথা নিয়ে গত রোববার রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি হন। বেশ কিছু দিন ছিলেন এখানেই। কিন্তু বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তাকে হাসপাতালে দেখতে যাননি। তখন এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হয় দলটির একাধিক নেতাকে। তারা নাম প্রকাশ না করার অনুরোধে এ প্রতিবেদককে আভাস দিয়ে জানিয়েছিলেন, দল ভাঙ্গার ষড়যন্ত্রে জড়িত মওদুদ আহমেদ। এ কারণে নেত্রী যান নি তাকে দেখতে। মওদুদ ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র জানায়, বিএনপির কয়েকজন ভাইস চেয়ারম্যানসহ স্থায়ী কমিটি, উপদেষ্টা কাউন্সিল, কেন্দ্রীয় কমিটি ও ঢাকা মহানগর কমিটিরও বেশ কিছু নেতা- তৃণমুল বিএনপিতে যোগ দিচ্ছেন।

    বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ের প্রভাবশালী কয়েক কর্মকর্তাও ‘তৃণমূল বিএনপি’তে থাকছেন বলেও সূত্রটি জানায়।এদিকে তৃনমূল বিএনপি- গড়ার খবরটি শুধু বিএনপির উচ্চ মহলেই নয়, কর্মীপর্যায়েও এ নিয়ে চলছে কানাঘুষা। দল ভাঙার এমন আশঙ্কার কথা প্রকাশ্যে-অপ্রকাশ্যে ব্যক্তও করছেন বিএনপির অনেক নেতা। তারা সতর্ক থাকতে বলছে দলীয় নেতাকর্মী সমর্থকদের।ইউনাইটেড হাসপাতালের নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানায়, মওদুদ আহমদ হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. এমএ মুমিনুজ্জামানের অধীনে চিকিৎসাধীন ছিলেন ইউনাইটেড হাসপাতালে। তবে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় তার হূদরোগ ধরা পড়েনি। বুকে সাধারণ ব্যথা ছিল, যা কিছুদিন ওষুধ সেবন ও বিশ্রামেই ভালো হয়ে যায়। হাসপাতালে মওদুদ প্রায় সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন।

    মওদুদের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, অসুস্থ হওয়ার পর ইউনাইটেড হাসপাতালে মওদুদকে দেখতে যান আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা তোফায়েল আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই এলাহী, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনাসহ তার অনেক রাজনৈতিক কর্মী। প্রসঙ্গত, মওদুদ আহমেদ দল পরিবর্তন করেছিলেন এর আগেও। জাতীয় পার্টিতে থাকাকালে এরশাদের উপ-প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তিনি। সর্বশেষ তিনি পালন করেন বিএনপি সরকারের আইন মন্ত্রনালয়ের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বও।সুত্র Japan Awamileague

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here