তাহিরপুরে হামলায় ইজারাদারসহ আহত-৫

    0
    13
    সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ   সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার যাদুকাটা নদীর ঘাগড়া ঘাটে বৈধ ইজারাদার শেখ শফিক মিয়া হামলার শিকার হয়েছেন। স্থানীয় সংঘবদ্ধ প্রভাবশালী চাঁদাবাজরা তাকে ও তার ছোট ভাই শেখ আলমগীর হাসানসহ পাচঁজনকে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে এসিল্যান্ড,তাহিরপুর ও বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়ির সদস্য তাদের উদ্ধার করে। এঘটনায়  ইজারাদার শেখ শফিক মিয়া ৯ই জানুয়ারী তাহিরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
    লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানায়ায়,বুধবার বিকালে সরকারী নিয়ম নেমে টোল আদায় করার সময় ১৩-১৪জনের স্থানীয় সংঘবদ্ধ একটি চাঁদাবাজ ঘেরাও করে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে চাঁদা দাবী করে টেবিলের উপর কালেকশনের ৬০হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এসময় বাধা দিলে শফিক মিয়া ও তার ছোট ভাই আলমগীর হাসানসহ ৫ জনকে বেধরক পিঠিয়ে আহত করে। হামলার বিষয়টি জেলা প্রশাসক ও তাহিরপুর সহকারী কমিশনার ভূমি কে জানালে সন্ধ্যা সাড়ে ৫ টায় তাহিরপুর সহকারী কমিশনার(ভূমি),তাহিরপুর ও বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়ির সদস্য তাদের উদ্ধার করেন। পরে রাতে তাহিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা গিয়ে তারা চিকিৎসা নেয়।
    আরো জানাযায়,উপজেলার ঘাগড়া ঘাট হতে লাউড়েরগড় পর্যন্ত যাদুকাটা নদীর দু-তীরে বালি পাথর ভর্তি কার্গো,স্টীলবডি ও দেশীয় নৌকা উঠানামার ঘাটটি ৩৩লক্ষ ৫০হাজার টাকা রাজস্ব দিয়ে গত ৭ মার্চ তাহিরপুর ইউএনও অফিস স্মারক নং ০৫,৪৬.৯০৯২.০০০.০৮.০৬৭.১৯২৮৫এর স্মারক মূলে ১লা বৈশাখ ১৪২৬ বাংলা সনের ত্রিশ চৈত্র পর্যন্ত এব বছর লিজ বন্দোবস্ত গ্রহন করেন শেখ শফিক মিয়া। এরপর থেকে সরকারী নিয়ম নেমে টোল আদায় করলেও ১৩-১৪জনের স্থানীয় সংঘবদ্ধ একটি চাঁদাবাজ চক্র র্দীঘ দিন ধরেই চাদাঁদাবী করছে আসছে। এবং একাধিক বার জোড়পূর্বক ঘাট দখল করে বালি পাথর ভর্তি কার্গো,স্টীলবডি ও দেশীয় নৌকা থেকে চাঁদা আদায় করে। এতে করে বৈধ ইজারাদার সরকারী নিয়ম অনুযায়ী টোল আদায় করতে না পারায় ক্ষতির সম্মুখিন হয়।
    এর পূর্বেও একাধিক বার ঘাট দখলের লিখিত ভাবে জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কাছে অভিযোগ দায়ের করলেও চাদাঁবাজদের বিরোদ্ধে প্রশাসন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নিয়ে নিরব ভূমিকা পালন করায় স্থানীয় সংঘবদ্ধ প্রভাবশালী চাঁদাবাজরা জোড়পূর্বক ঘাট দখল করে বালি পাথর ভর্তি কার্গো,স্টীলবডি ও দেশীয় নৌকা থেকে টোল টোল আদায় করায় ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছে বলে জানান,ইজারাদার শেখ শফিক মিয়া। তিনি জানান,আমি প্রশাসনের নিকট জীবনের নিরাপত্তা ও চাঁদাবাজদের বিরোদ্ধে প্রয়োজনীয় আইননানুগ ব্যবস্থা নেবার দাবী জানাচ্ছি।
    এ বিষয়ে তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আতিকুর রহমান জানান,এবিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। এবিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।