তাহিরপুরে সাড়ে ৪ শ পিস ইয়াবাসহ আবারো গ্রেফতার-১

    0
    20

    আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৯জুলাই,সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলা মাদক ব্যবসায়ীদের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে। উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্টে ওপেন বেচা কেনা হচ্ছে সর্বনাসা ইয়াবা,হেরুইন,মদ ও গাজা। আজ ২৯শে জুলাই শনিবার দুপুর ২টায় অভিযান চালিয়ে সাড়ে ৪ শত পিস ইয়াবাসহ সুজাত মিয়া (৩২) নামের আরো এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

    আটককৃত ইয়াবার মূল্য ১লক্ষ ৩৫হাজার টাকা। গ্রেফতারকৃত ইয়াবা ব্যবসায়ী সুজাত মিয়া উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের কামড়াবন্দ গ্রামের ওয়াহেদ কোম্পানীর ছেলে।

    পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়,উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের কামড়াবন্দ গ্রামের মৃত সুদি ব্যবসায়ী বদ মিয়ার ছেলে হাবিব সারোয়ার আজাদের নেতৃত্বে এলাকার বিভিন্ন পয়েন্টে চলছে ওপেন মদ,গাজা,হেরুইন ও ইয়াবার জমজমাট বাণিজ্য।

    প্রতিদিনের মতো আজ ২৯শে জুলাই শনিবার দুপুরে হাবিব সারোয়ার আজাদের বাড়ির পাশে অবস্থিত তারই সহযোগী সুজাত মিয়া তার নিজবাড়িতে ইয়াবা বিক্রি করছিল। এই খবর পেয়ে বাদাঘাট তদন্ত ক্যাম্পের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা এসআই তপন অভিযান চালিয়ে ৪শত ৫০পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী সুজাত মিয়াকে হাতে নাতে গ্রেফতার করে।

    অভিযানের সময় মাদক ব্যবসায়ীদের গডফাদার হাবিব সারোয়ার আজাদ বাঁধা প্রদান করেছিল কিন্তু ব্যর্থ হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এর আগে গত ২৭শে জুলাই বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টায় উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের বড়ছড়া শুল্কষ্টেশন সংলগ্ন জয়বাংলা বাজারের খন্দকার আবাসিক হোটেলের সামনে হেরুইন বিক্রি করার সময় হাবিব সারোয়ার আজাদের একান্ত সহযোগী ইয়াকুব আলী (৩৪) কে ৪৩ পুরিয়া হেরুইনসহ টেকেরঘাট পুলিশ ক্যাম্পের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তা এএসআই ইমাম গ্রেফতার করে।

    তার আগে গত ২৫শে জুলাই মঙ্গলবার রাত ১০টায় বাদাঘাট ইউনিয়নের বিন্নাকুলি বাজারে অভিযান চালিয়ে হাবিব সারোয়ার আজাদের ভাতিজা আলীমুন শাহ জুবায়ের (৩০) কে ১৮৩ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করে র‌্যাব। কিন্তু চাঁদাবাজি,চোরাচালান,মূর্তি ভাংচুর,প্রধানমন্ত্রীর পোষ্টার পুরানোসহ স্থানীয় সাংবাদিকদের প্রাণনাসের হুমকির ঘটনায় থানায় ও আদালতে ১০টি মামলা ও ৫টি সাধারণ ডায়রী থাকার পরও মাদক ব্যবসায়ীদের গডফাদার হাবিব সারোয়ার আজাদকে গ্রেফতার করছে না প্রশাসন।

    এব্যাপারে তাহিরপুর উপজেলা প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক,দৈনিক ইত্তেফাক এর উপজেলা সংবাদদাতা আলম সাব্বির,ব্যবসায়ী রুবেল মিয়া,শহিদুল ইসলাম,রফিকুল ইসলামসহ আরো অনেকে বলেন,প্রশাসনের লোকজন বিভিন্ন সময় অভিযান চালিয়ে ইয়াবা,হেরুইন ও মদসহ মাদক ব্যবসায়ীদেরকে আটক করলেও মাদক ব্যবসায়ীদের গডফাদার হাবিব সারোয়ার আজাদকে কখনোই গ্রেফতার না করার ফলে দিনদিন এলাকায় মাদকদ্রব্যের ভয়াবহ বিস্তার ঘটছে,ধ্বংস হচ্ছে যুব সমাজ।

    ইয়াবাসহ গ্রেফতার হওয়া মাদক ব্যবসায়ী সুজাত মিয়ার বিরুদ্ধে সন্ধ্যায় ১টি থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
    তাহিরপুর থানার ওসি নন্দন কান্তি ধর ৪শত ৫০পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী সুজাত মিয়াকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here