ডিবির হাওর বিজিবির অভিযানে ১৯৩ বোতল মদ আটক

    0
    11
    রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর সিলেট প্রতিনিধিঃ  সিলেটের ডিবির হাওর ক্যাম্পের বিজিবি’র ভিআইপি সদস্যের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে মাদক ব্যবসায়ী কর্তৃক ভারত হতে নিয়ে আসা ১৯৩ বোতল ভারতীয় মদের চালান আটক করে ৪৮ বিজিবি ৷
    এলাকাবাসী সূত্রে যানাযায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিত্বে ৪৮ বিজিবি’র নায়েক সুবেদার তরিকুল ইসলামের নির্দেশে ডিবির হাওর বিশেষ ক্যাম্পের ভিআইপি সদস্য মোঃ শাহজাহান মিয়ার নেতৃত্বে ৮ জানুয়ারী শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ১০টায় ডিবির হাওর এলাকার ১২৮৫ আন্তর্জাতীক পিলারের সাব পিলার ৫এস দিয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা ভারত হতে ১৯৩ বোতল ভারতীয় অফিসার চয়েছ মদ নিয়ে আসে ৷ বিজিবি’র অবস্থান টের পেয়ে মাদক ফেলে ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায় ৷ পরে বিজিবি অভিযান পরিচালনা করে পতিত অবস্থায় সবএস পিলার এলাকা হতে বাংলাদেশের অভ্যান্তরে প্রায় ২শত গজ ভিতর হতে মাদক সামগ্রী আটক করে ক্যাম্পে নিয়ে যায় ৷
    এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসী আরও জানান, ডিবিরহাওর ক্যাম্প এলাকা ১২৮৪ হতে ১২৮৬ পর্যন্ত বিজিবি সার্বক্ষনিক টহল অব্যাহত রাখার কারনে চোরাকারবারী দলের সদস্যরা এবং মাদক ব্যবসায়ীরা কোন সুযোগ করতে পারছে না ৷ অপরদিকে শ্রীপুর, মিনাটিলা, জৈন্তাপুর ও লালাখাল সীমান্তের বিভিন্ন পথ দিয়ে কোটি কোটি টাকার ভারতীয় মদ ও মাদক জাত পণ্য কসমেট্রিক্স সামগ্রী গরু মহিষ বাংলাদেশে নিয়ে আসছে ৷ তারা আরও বলেন ডিবির হাওর এলাকা দূর্ঘম হওয়ার পরে চোরাকাবারী ও মাদক ব্যবসায়ীরা সুযোগ তৈরী করতে পারছে না ৷ বাকী ক্যাম্প গুলো তাদের অবস্থান একটু শক্ত করলে সীমান্ত এলাকায় মাদক নির্মূল করা যেতে ৷ তাদের অভিযান কিংবা সীমান্ত টহল রহস্যজনক ৷
    এবিষয়ে ডিবিরহাওর ক্যাম্পের নায়েক সুবেদার তরিকুল ইসলাম ও ভিআইপি সদস্য মোঃ শাহজাহান মিয়া মাদকের চালান আটকের কথা স্বীকার করে বলেন দেশ মার্তৃকার টানে আমাদের ক্যাম্প এরিয়াকে মাদক ও চোরাচালান মুক্ত রাখতে সর্বাত্মক প্রচেষ্ট করে যাচ্ছি ৷ যার ফলশ্রুতিতে আমরা চালানটি আটক করতে সক্ষম হয়েছি ৷ মাদক আটকের বিষয় উদ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে ৷ কর্তৃপক্ষের নির্দেশ মেতাকেক পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে ৷ তবে কারা এই চালানটি বাংলাদেশে নিয়ে এসেছে তার অনুসন্ধান চলছে ৷