জৈন্তাপুরে মুক্তিযোদ্ধার বিরুদ্ধে কুৎসা রটাচ্ছে একটি চক্র

    0
    7

    আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৯ফেব্রুয়ারী,রেজওয়ান করিম সাব্বির: সিলেটের জৈন্তাপুরে নিরিহ মুক্তিযোদ্ধার বিরুদ্ধে কুৎসা রটানের অভিযোগ পাওয়া গেছে। চক্রটির কবল হতে প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বাহীর কাছে আবেদন।

    অভিযোগ সূত্রে জানাযায় কয়েক মাস পূর্ব হতে ২নং লক্ষীপুর গ্রামের মৃত ইব্রাহীম আলীর ছেলে মোঃ আবুল কাশেম, মৃত আব্দুল ছত্তারের ছেলে মোঃ আরব আলী, বিরাইমারা গ্রামের মৃত জোনাব আলীর ছেলে মোঃ ইউছুব আলী, মোঃ আব্দুল আজিজ এর ছেলে কাশেম আলী, মৃত আব্দুল জব্বারের ছেলে মোঃ সামছু মিয়া গংরা নানান কারনে ২নং লক্ষীপুর(রাংপানি) গ্রামের মরহুম আব্দুল ওয়াহিদের ছেলে বীরমুক্তিযোদ্ধা সুলতান মিয়ার বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর কাছে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য মসজিদ ও কবর স্থানের জমি দখল করার পায়তারা করছেন বলিয়া সমাজে হেও প্রতিপন্ন করতে অপপ্রচার চালাচ্ছে, মুক্তিযোদ্ধার পরিবারকে গ্রাম ছাড়া করার লক্ষ্যে মিথ্যা কথা বলিয়া নিরিহ গ্রামবাসীকে নানান কৌশলে গণস্বাক্ষর নিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন সুলতান মিয়া। সুলতান মিয়া অভিযোগে উল্লেখ করেন মসজিদ ও কবর স্থানের ভূমি সুলতান মিয়ার পিতা মরহুম আব্দুল ওয়াহিদ মিয়া দান করেছেন। তাই এভূমি মুক্তিযোদ্ধা সুলতান মিয়া কিংবা তার পরিবার কখনো দখল কিংবা দখলের অপচেষ্ঠা করে নাই। গ্রামবাসীকে ফুসলিয়ে তুলতে এবং তার সম্মানহানি করতে চক্রটি অপ্রপ্রচার চালাচ্ছে। এজন্য তিনি উপজেলা নির্বাহী বরাবরে সুষ্ট বিচারের জন্য অভিযোগ করেন।

    এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ খালেদুর রহমান অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বলেন- মুক্তিযোদ্ধা সুলতান মিয়া একটি অভিযোগ করেন। বিষয়টি তদন্ত স্বাপেক্ষে সুষ্ঠ সমাধানের জন্য ইউনিয়ন পরিষদে প্রেরন করা হয়েছে।

     এবিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন বলেন- উপজেলা নির্বাহী কর্তৃক আমার কছে অভিযোগটি প্রেরণ করা হয়। অভিযোগটি পাওয়ার পর পর ৫ইউপি সদস্যদের নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে দিয়েছি। তারা বিষয়টি যাচাই বাছাই করে আমার আদালতে উপস্থাপন করবেন। তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইন আনুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here