জুরিখে আন্তর্জাতিক ব্যবসায়ী উদ্যোক্তাদের মিলন মেলা

    0
    12

    আমার সিলেট টুয়েন্টি ফোর ডটকম,০৫এপ্রিল,আবু তাহেরঃ বিশ্বের ৪৮টি দেশের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে নৈসর্গিক সৌন্দর্যের শহর জুরিখে অনুষ্ঠিত হলো দুই দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক ব্যবসায়ী উদ্যোক্তাদের মিলন মেলা।ওয়ার্ল্ড বিজনেস লজিস্টিকস নেটওর্য়াক এর আয়োজনে এ মিলন মেলা অনুষ্ঠিত হয়। জুরিখের গ্রান্ড কামিহা হোটেল এর বলরুমে এ মিলন মেলার উদ্বোধন করেন নাইজেরিয়ার রাষ্ট্রদূত ইব্রাহিম মোহাম্মদ

    ইউরোপে পণ্য রপ্তানি ও নতুন বাজার সম্প্রসারণে সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রদানের প্রত্যয় নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো উদ্যোক্তাদের মিলন মেলা  । লিড টাইম অপটিমাইজেশন, সোর্সিং, কাস্টমার এনগেজমেন্ট, সাপ্লাই চেইন ও রিটেইল বিজনেস সংক্রান্ত কয়েকটি  বিজনেস সেশন নিয়ে সাজানো হয় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে আগত ব্যবসায়ীদের এ সম্মেলন । আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিশেষজ্ঞরা এ সেশনগুলোতে বক্তব্য ও বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

    মিস শ্রীলন্কা আরুশা,র প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় এসময় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন নেটওয়ার্কের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক আনিস খাঁন।এসময় উপস্থিত ছিলেন নেটওর্য়াকের চীফ এডভাইজর ফিয়েটা,র সাবেক প্রেসিডেন্ট স্টেন লিম, হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির প্রফেসর ইচ্ছা বালুচ, এডভাইজার মিগেল, ভাইস প্রেসিডেন্ট আদনান মোহাম্মদ ইকবাল সহ অন্যান্যরা।

    প্যানেল বক্তারা ইউরোপের এলডিসি রাষ্ট্রসমূহের কোটা ও ট্যারিফমুক্ত বাজারে প্রবেশাধিকার নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। ব্যাপক বাণিজ্য সম্ভাবনার প্রতিশ্রুতি ও নতুন বাজার সম্প্রসারণের আশাবাদ নিয়ে শেষ হয় এ মিলন মেলা। গ্লোবাল বিশ্বে এ নেটওর্য়াকের গুরুত্ব অপরিসীম উল্লেখ করেন নেটওর্য়াকের পরিচালক আনিস খান।

    ওয়ান টু ওয়ান বিজনেস সলিউশনের মাধ্যমে বিশ্বের সকল প্রান্তে একসাথে ব্যবসা করা সম্বভ বলে উল্লেখ করেন আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিশেষজ্ঞ ফিয়েটা,র সাবেক প্রেসিডেন্ট স্টেন লিম।

    বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, ইরান, জাপান,দুবাই  চিন, যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, অস্ট্রেলিয়া, জার্মানিসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও দেশের প্রতিষ্ঠান মেলায় নিজেদের উৎপাদিত পণ্য প্রদর্শন করে। দেশি ও বিদেশি পণ্যসামগ্রী প্রদর্শন, রপ্তানি বাজার অনুসন্ধান এবং দেশি-বিদেশি ক্রেতার সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে এ মেলা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

    মেলায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে শিল্পপণ্য ও ভোগ্যপণ্য উত্পাদনকারীরা একদিকে তাদের উত্পাদিত পণ্যের গুণগত মান, ডিজাইন, প্যাকেজিং ইত্যাদি প্রদর্শন ও বিপণন করতে, অন্যদিকে পারস্পরিক সংযোগ স্থাপনসহ অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য প্রসারের সুযোগ হবে বলে জানান আয়োজকরা।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here