জাল মুক্তিযোদ্ধা সনদ প্রদানঃকমান্ডারের বিরুদ্ধে মামলা

    0
    7

    আমার সিলেট  24 ডটকম,২২অক্টোবর,চুনারুঘাট সংবাদদাতা হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আব্দুস ছামাদের বিরুদ্ধে এক মুক্তিযোদ্ধাকে জাল মুক্তিযোদ্ধা সনদ ও ২০ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমল আদালত-২ হবিগঞ্জে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোমবার এ আলোচিত  মামলাটি দায়ের করেন উপজেলার রাণীগাঁও ইউনিয়নের মু্ক্তিযোদ্ধা আব্দুল  হাসিম। মামলার বিবরণে জানা যায়, গত ২৫ জুন ২০১২ইং তারিখে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাসিমকে মুক্তিযোদ্ধার সনদ দেওয়ার নামে ২০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন।

    পরে গত ৬ জুন ২০১৩ইং তারিখে ডেপুটি কমান্ডার আব্দুস ছামাদ ওই মুক্তিযোদ্ধাকে একটি (সনদ নং-ম ৫৫৯২২ ও স্মারক নং মুঃ বিঃ ম/মাঃ/হবিগঞ্জ/প্রঃ ৩/১৮/২০০৪/১৪৬৭ তাং- ১০/০৩/১৪১২বাং/ ২৪/০৬/২০০৪ইং একখানা সনদ প্রদান করেন। বিগত ০৩/০৭/২০১২ইং তারিখে ওই মুক্তিযোদ্ধার ছেলে সাইফুল ইসলাম মুক্তিযোদ্ধা কৌটায় কনষ্টেবল পদে নিয়োগ পান। নিয়োগ পাওয়ার পর বিভিন্ন স্থানে ট্রেনিং শেষে সাইফুল ইসলামের কর্মজীবন শুরু হলে এক পর্যায়ে তার পিতার মুক্তিযোদ্ধা সনদটি জাল বলে প্রমাণিত হয়।

    ফলে পুলিশ কনষ্টেবল সাইফুল ইসলাম ৩দিন জেল খাটেন। ৩দিন জেল খাটার পর সাইফুলের জামিন হয়। পরে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাসিম খোঁজখবর নিয়ে বুঝতে পারেন ডেপুটি কমান্ডার আব্দুস ছামাদের দেয়া সনদটি জাল। এ নিয়ে এলাকায় মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে মিশ্র পতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। উল্লেখ্য যে, ডেপুটি কমান্ডার আব্দুস ছামাদের বিরুদ্ধে চুনারুঘাট মুক্তিযোদ্ধা সংসদের অর্থ আত্মসাৎসহ আরও বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here