Friday 6th of December 2019 05:06:31 AM
Sunday 15th of September 2013 08:34:43 PM

ছোটফৌদ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা বদলী ঘটনায় ফুঁসছে এলাকাবাসী

শিক্ষা ডেস্ক
আমার সিলেট ২৪.কম
ছোটফৌদ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা বদলী ঘটনায় ফুঁসছে এলাকাবাসী

আমারসিলেট 24ডটকম , সেপ্টেম্বর কানাইঘাট প্রতিনিধি  কানাইঘাট লক্ষ্মীপ্রসাদ পূর্ব ইউপির ছোটফৌদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা কয়ছরা বেগমকে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি গংদের মিথ্যা অভিযোগের প্রেক্ষিতে অন্যত্র বদলীর ঘটনায় ফুঁসে উঠেছেন স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবক ও এলাকাবাসী। গতকাল রবিবার এলাকাবাসী প্রধান শিক্ষকের অপসারণ ও শিক্ষিকা কয়ছরা বেগমকে পুর্নবহালের দাবী জানিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে স্মারকলিপি দিয়েছেন।

জানা যায়, ছোটফৌদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা কয়ছরা বেগমের বিরুদ্ধে দায়িত্ব পালনে অবহেলাসহ বিভিন্ন অভিযোগ এনে স্কুলের প্রধান শিক্ষক আহমদ হোসেন চৌধুরীর যোগসাজসে স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীসহ কয়েকজন অন্যত্র বদলীর অভিযোগ এনে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে গত ৪/৭/১৩ইং তারিখে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার শাহীন মাহবুব উক্ত শিক্ষিকার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্প্রতি গোপনে তদন্ত করেন। অপর দিকে  সহকারী শিক্ষিকা কয়ছরা বেগম তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট উল্লেখ করে সরজমিনে বিষয়টি প্রকাশ্য তদন্ত করার জন্য গত ২২ জুলাই উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের বরাবরে লিখিত অভিযোগ দেন।

একই তারিখে উক্ত শিক্ষিকার বিরুদ্ধে সাজানো অভিযোগ প্রত্যাহার এবং প্রধান শিক্ষককে দুর্নীতিবাজ আখ্যায়িত করে স্কুলের অভিভাবক ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে পৃথক আরো একটি অভিযোগ দেন। স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির সাজানো অভিযোগের প্রেক্ষিতে তাকে অন্যত্র বদলীর প্রক্রিয়া চলছে জেনে সহকারী শিক্ষিকা কয়ছরা বেগম পুনরায় গত ১২/০৮/২০১৩ইং তারিখে সহকারী শিক্ষিকা কয়ছরা বেগম তাকে অন্যত্র বদলী না করার জন্য জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে আরো একটি অভিযোগ দেন।

কিন্তু তারপরও গত ২ সেপ্টেম্বর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এক আদেশে শিক্ষিকা কয়ছরা বেগমকে তার কর্মস্থল ছোটফৌদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় হইতে উজান বারাপৈত সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বদলীর আদেশ দেন। উক্ত বদলীর আদেশটি ভুয়া ও স্মারকবিহীন দাবী করে স্কুলের অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা ফুঁসে উঠেছেন। তারা সহকারী শিক্ষিকা কয়ছরা বেগমকে একজন আদর্শবান ও কর্তব্যপরায়ন শিক্ষিকা দাবী করে বলেন, গত দু’বছর ধরে ছোটফৌদ স্কুলে তিনি নিষ্ঠার সাথে শিক্ষার্থীদের পাঠদান করে আসছেন। প্রধান শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির কতিপয় সদস্যদের অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় তাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে অন্যত্র বদলী করা হয়েছে।

অবিলম্বে তার বদলীর আদেশ প্রত্যাহারের দাবীতে গত শনিবার স্কুলের শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও এলাকাবাসী স্কুল চত্বরে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। গতকাল রবিবার স্কুলের অভিভাবক, ম্যানেজিং কমিটির সদস্যবৃন্দ ও এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষর সম্বলিত একটি স্মারকলিপি নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম সোহরাব হোসেন ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে উপস্থিত হয়ে দাখিল করেন। অভিযোগে স্কুলের প্রধান শিক্ষক হোসেন আহমদ চৌধুরীকে দুর্নীতিবাজ আখ্যায়িত করে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তাকে অন্যত্র বদলী এবং শিক্ষিকা কয়ছরা বেগমকে পুর্নবহালের দাবী জানান।

 

 


সম্পাদনা: News Desk, নিউজরুম এডিটর

আমারসিলেট২৪.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Place for advertisement
Place for advertisement

সর্বশেষ সংবাদ


সর্বাধিক পঠিত

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc