চুনারুঘাটে মায়া হরিণ জবাই করে মাংস ভাগবাটোয়ারা

0
150
চুনারুঘাটে মায়া হরিণ জবাই করে মাংস ভাগবাটোয়ারা
চুনারুঘাটে মায়া হরিণ জবাই করে মাংস ভাগবাটোয়ারা

এস এম সুলতান খান, চুনারুঘাট থেকেঃ  সংরক্ষিত বনের মায়া হরিণ জবাই করে মাংস ভাগবাটোয়ারা করেছেচুনারুঘাট উপজেলার দক্ষিণ ছনখলা গ্রামের কয়েকটি পরিবার।

বুধবার (১৩ এপ্রিল ২০২২) সকালে আঃ করিম ও আব্বাস মিয়া নামের দুই ব্যক্তি একটি মায়া হরিণকে ধাওয়া করে। হরিণটি দৌড়াতে দৌড়াতে ক্লান্ত হলে এক সময় মকছুদ আলীর পুকুরে পড়ে যায়। তখন আঃ করিম রড দিয়ে হরিণটির মাথায় আঘাত করে।

আঘাতে হরিণটি নিস্তেজ হয়ে যায়। পরে জবাই করে আজাদ মেম্বারের স্ত্রী, আঃ করিম, আব্বাস মিয়া, এংরাজ মিয়া, জাহির মিয়া, প্রবাসী তাহির মিয়ার স্ত্রী, করিমের স্ত্রী সহ আরও কয়েকজন ভাগবাটোয়ারা করে নেন।

সংবাদ পেয়ে রেমা-কালেঙ্গার বনকর্মীরা সেখানে যান। বনকর্মীরা সেখানে পৌঁছার আগেই হরিণ জবাই সব আলামত নষ্ট করে দেয় তারা।

উপস্থিত কয়েকজনের মুখ বন্ধ রাখতে দু’চার টুকরো করে মাংস দেয়।

এ বিষয়ে রেমা বিট অফিসার ছালেকিন নেওয়াজ বলেন, বনবিভাগ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লোক মুখে শোনা ছাড়া আর কোনো আলামত পাননি।

বিভাগীয় বন কর্মকর্তা রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, বিষয়টি খুব দুঃখজনক। বন্য প্রাণী হত্যা/শিকার দু’টিই দন্তনীয় অপরাধ। এ থেকে বিরত থাকতে তিনি ইতিমধ্যেই চুনারুঘাটে মাইকিং, লিফলেট বিতরণ করিয়েছেন।

হরিণটিকে যারা শিকার করে মাংস ভাগ বাটোয়ারা করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে সংশ্লিষ্ট বিভাগ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here