চুনারুঘাটে কলা বাগানের ফলন্ত গাছসহ শতাধিক গাছ কর্তন

    0
    10

    আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,১৭জুলাই,চুনারুঘাট প্রতিনিধিঃ  চুনারুঘাট উপজেলার দেওরগাছ ইউনিয়নের ইনাতাবাদ গ্রামের মৃত আব্দুল ওয়াহাবের পুত্র সাবেক মেম্বার মোঃ বদরুল কালাম আজাদ হিরন মিয়ার কলা বাগানের প্রায় শতাধিক গাছ কর্তন করে সাবাড় করে দিয়েছে এক বকাটে চক্র।

    অভিযোগে জানা যায়,সোমবার ভোর ৫টার দিকে হিরন মিয়ার সৃজনকৃত কলা বাগানে একই এলাকা ইনাতাবাদ গ্রামের আবুল কালাম আজাদ ওরফে আকছির মিয়ার পুত্র সফিকুর রহমান চঞ্চল (২৩) সহ একদল দূর্বৃত্ত পূর্ব বিরোধের জের ধরে উক্ত ফলের বাগানে জোর পুর্বক প্রবেশ করে দেশীয় অস্ত্র দা দিয়ে বাগানের বিভিন্ন জাতের ফলের গাছসহ প্রায় শতাধিক কলাগাছ কর্তন করে ফেলে।

    এ সময় বাগান পাহারাদার কালিশিরী গ্রামের মৃত মঞ্জব উল্লার পুত্র রজব আলী ও চেরাগ আলী বাধা দিলে পাহারাদারদের সফিকুর রহমানসহ তার সহযোগিরা প্রাণনাশের হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে পালিয়ে যায়।

    এ ব্যাপারে কলা বাগানের মালিক আজাদ চুনারুঘাট থানায় বাদী হয়ে সফিকুর রহমান চঞ্চলসহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনকে আসামী করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

    চুনারুঘাট থানার এস আই মুখলেছুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

    অভিযোগের বিবরণে জানা যায়, কলার ছড়ির ক্ষতিসাধন বাজার মূল্য অনুমান ১ লক্ষাধিক টাকা বলে দাবী করেছেন বাগানের মালিক।

    উল্লেখ্য যে, সাবেক মেম্বার বদরুল কালাম আজাদের সাথে সফিকুর রহমান চঞ্চলের দীর্ঘদিন যাবত ধরে পূর্ব বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে সোমবার ভোরে সফিকুর রহমান চঞ্চল কলা বাগানের প্রায় শতাধিক কলাগাছ দেশীয় অস্ত্র দা দিয়ে কুপিয়ে সাবাড় করে ফেলে।

    এ ব্যাপারে সফিকুর রহমান চঞ্চল এর ফোন নম্বারে কল দিয়ে জানতে চাইলে আমার সিলেট প্রতিনিধিকে তিনি কর্কশ ভাষায় বলেন “মিছা কথা আপনে কে?” পরিচয় শুনে বলে “ফাউ আজাইরা কথা কইয়া লাভ নাই দরকার পরলে সামনে আইয়া কথা কউ, ফোন রাখ”বলে রাগান্বিত হয়ে লাইন কেটে দেন।

    অপরদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানিয় সুত্রে জানা যায়, “পিতা প্রবাসে থাকায় ছেলে সফিকুর রহমান চঞ্চল বেপরোয়া হয়ে উঠেছে ,সে সবসময় সাথে বিভিন্ন ধরনের অস্রসস্র নিয়ে ঘুরাফেরা করে তার বিরুদ্ধে কথা বলার সাহস এলাকার কারো নেই এলাকায় তাকে বকাটে মস্তান হিসেবে সবায় জানে।”

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here