চুনারুঘাটে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে দুই স্কুল ছাত্রীর বাল্য বিয়ে বন্ধ

    0
    12

    আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,২৭অক্টোবর,হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায় দুদিনে দুই স্কুল ছাত্রীর বাল্য বিয়ে পন্ড করে দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) কাইজার মোহাম্মদ ফারাবী। ২৬ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ও ২৭ অক্টোবর শুক্রবার দুপুরের দিকে বাল্য বিয়ে পন্ড করে দেন তিনি। এ পর্যন্ত চারটি বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেন ইউএনও।
    জানা যায়, সম্প্রতি চুনারুঘাট উপজেলায় ইউএনও হিসাবে যোগ দেন কাইজার মোহাম্মদ ফারাবী। যোগদানের পর থেকে তিনি বাল্য বিয়ে প্রতিরোধে কটোর অবস্থান নিয়েছেন। বৃহস্পতিবার উপজেলার পৌর এলাকার ৯নং ওয়ার্ডের চন্দনা গ্রামে আয়োজিত চুনারুঘাট পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের স্কুল ছাত্রী
    রত্না (১৫) বিয়ের আয়োজন পন্ড করে দেন তিনি। শুক্রবার চুনারুঘাট পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী রিজওয়ানা আক্তার রনি (১৪) বাল্য বিয়ের আয়োজন পন্ড  করে দেওয়া হয়েছে। রনি দেওরগাছ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের রিক্সা মিস্ত্রী মো: শহীদ মিয়ার মেয়ে। শহীদ মিয়ার পাঁচ সন্তানের মধ্যে তৃতীয় হচ্ছে রনি।রনিকে স্কুলে ভর্তি করে পড়াশুনার দায়িত্বও নিলেন ইউএনও। ইউএনও তার ফেসবুক আইডিতে লিখেন, গত সাত মাস ধরে স্কুলে যাচ্ছে না রনি অথচ তাঁর ক্লাসের ১০০ এর অধিক ছাত্রীর মাঝে তাঁর রোল-৭। মেধাবী ও সম্ভাবনাময়ী এই মেয়েটির স্কুলের সকল বকেয়া পরিশোধ করে পড়াশোনাতে তাঁকে নিয়মিত করার দায়িত্ব নিল উপজেলা প্রশাসন এবং পরিবারটিকেও সরকারি কোন ভাতার আওতায় এনে ব্যবস্হা করছেন।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here