চট্টগ্রামে বাড়ির ছাদে অস্ত্রের কারখানা দাবী পুলিশের

    0
    8

    নূরুজ্জামান ফারুকী,বিশেষ প্রতিনিধিঃ  চট্টগ্রামের পাঠানটুলি এলাকায় একটি বাড়ির ছাদে অস্ত্র তৈরির কারখানার সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে ওই এলাকায় গুলির শব্দ শুনে স্থানীয়দের খবরে পুলিশ গিয়ে অভিযান চালায়। পরে নিজাম খান নামের এক ব্যক্তির বাড়ি শনাক্ত করে সেখানে তল্লাশি চালিয়ে বাড়ির ছাদে অস্ত্র কারখানা পাওয়া যায়।অভিযানের সময় নিজামকে না পেয়ে পুলিশ তার স্ত্রী মেহেরুন্নেসাকে (৩৯) গ্রেফতার করেছে।

    শুক্রবার নগরীর ডবলমুরিং থানায় সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার (পশ্চিম) ফারুক উল হক।উপকমিশনার বলেন, পাঠানটুলির বংশাল পাড়ায় গুলির শব্দ শুনে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে বাড়িটি শনাক্ত করে। নিজামের বাড়ি থেকে গুলি করা হয়েছে নিশ্চিত হয়েই ওই বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। পরে ওই বাড়ির ছাদে তল্লাশি চালিয়ে কবুতরের ঘরের ভেতর অস্ত্র কারখানার সন্ধান পাওয়া গেছে।তিনি জানান, নিজামের বাড়ি থেকে দু’টি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র ও একটি এয়ার গান, অস্ত্র তৈরির ডায়াগ্রামসহ বিভিন্ন ধরনের লোহা কাটার সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। এসব দিয়ে ঘরে বসেই নিজাম অস্ত্র তৈরি করতেন।

    সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে উপকমিশনার ফারুক উল হক বলেন, নিজামের অপরাধের ধরন দেখে মনে হচ্ছে সে পেশাদার অপরাধী। নিজে বাসায় অস্ত্র তৈরি করে বিক্রি করত। তাকে গ্রেফতার করার পর জানা যাবে সে এসব অস্ত্র কাদের কাছে বিক্রি করত।ডবলমুরিং থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন জানান, বৃহস্পতিবার রাতে জাতীয় জরুরি সেবার ৯৯৯ নম্বর থেকে তাদের কাছে ফোন করে জানানো হয় বংশাল পাড়ায় গুলির শব্দ শোনা যাচ্ছে। এরপর থানা পুলিশের একটি দল সেখানে গিয়ে বিভিন্ন বাসায় ও এলাকায় প্রায় তিন ঘণ্টা অভিযান চালায়। একপর্যায়ে  শাহ আলম নামের এক ব্যক্তি পুলিশকে জানান- নিজাম খান নামের এক ব্যক্তি তার বাসায় গুলি করেছে। গত বুধবার চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনের দিন নিজাম তাকে হুমকি দিয়েছিল। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। এর জেরেই বৃহস্পতিবার রাতে তার বাসা লক্ষ্য করে গুলি করে নিজাম।ওসি জানান, এ ঘটনায় নিজাম খান ও তার স্ত্রী মেহেরুন্নেসা এবং অপর এক সহযোগীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন শাহ আলম।