ঘুষ খাওয়ায় এক শিক্ষা অফিসারকে গণধোলাই

    0
    5

    আমারসিলেট24ডটকম,১৪মার্চঃ  নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগে বিরামপুর শহরে  গত বুধবার রাতে পার্শবর্তী নবাবগঞ্জ উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে বিক্ষুদ্ধ জনতা ব্যাপক গণধোলাই দিয়েছে। বিরামপুরের লোকজন তাকে উদ্ধার করে বিরামপুর হাসপাতালে ভর্তি করলেও জনরোষ থেকে বাঁচতে তিনি নিজ জেলা বগুড়া হাসপাতালে রেফার্ড নিয়েছেন।জানা গেছে, বিরামপুর শহর থেকে হিটলারুজ্জামান (হাকিম) পার্শববর্তী নবাবগঞ্জ উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার হিসাবে কর্মরত ছিলেন। তার বাড়ি বগুড়ার ধুনট থানার নাটাবাড়ি গ্রামে।

    ঘটনায় প্রকাশ, স¤প্রতি নবাবগঞ্জ উপজেলার ৪৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পিয়ন কাম নৈশ্য প্রহরী পদে লোক নিয়োগের জন্য জনপ্রতি ৪/৫ লাখ করে টাকা নিয়েছেন। নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন না করে তিনি অন্যত্র বদলি হয়ে যাচ্ছেন এমন খবরে নবাবগঞ্জ উপজেলার বিক্ষুদ্ধ জনতা বুধবার (১২মার্চ) সন্ধায় বিরামপুর রেলগেট এলাকায় শিক্ষা অফিসার হিটলারুজ্জামানকে ব্যাপক গণধোলাই দিয়ে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।
    প্রত্যক্ষদর্শীরা হিটলারুজ্জামানকে উদ্ধার করে বিরামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান খায়রুল আলম রাজুর মিল চাতালে নিয়ে তাকে জনরোষ থেকে রক্ষা করেন।এসময় হিটলারুজ্জামান ঘুষের অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, লোকজন ভুল বুঝে তাকে আক্রমন করেছে। আহত হিটলারুজ্জামানকে রাতে বিরামপুর হাসপাতালের (২৬৬ ক্রমিকে) জরুরী বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হয়। উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই তাকে বগুড়া হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।
    জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার একেএম আনোয়ার হোসেনের সুত্রে বলা হয়,তিনি জানান, হিটলারুজ্জামানকে মারপিটের ঘটনাটি তিনি শুনেছেন এবং পঞ্চগড় জেলায় তার বদলীর আদেশ হয়েছে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here