খালেদা জিয়ার কাছে তালিকা চেয়েছেন তথ্যমন্ত্রী

    0
    19

    আমারসিলেট24ডটকম,০৪মার্চঃ পিলখানায় সেনা হত্যাসহ তিন মাসে বিএনপির ৩২ হাজার নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলার অভিযোগের বিষয়ে তালিকা চেয়েছেন তথ্যমন্ত্রী।এ জন্য এক মাসের সময়সীমাও বেঁধে দিয়েছেন হাসানুল হক ইনু।মঙ্গলবার তথ্য অধিদফতরের সম্মেলন কক্ষে ‘বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি’ বিষয়ক এক সংবাদ সম্মেলনে এ আলটিমেটাম দেন তথ্যমন্ত্রী।

    তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেন, “সম্প্রতি রাজবাড়ির সমাবেশে খালেদা জিয়া মিথ্যাচার করেছেন। সেখানে তিনি বলেছেন, পিলখানায় ৫৭ জন সবমিলিয়ে ৭০ জন সেনা কর্মকর্তা হত্যা, গত তিন (২৫ অক্টোবর-২৫ জানুয়ারি) মাসে  ৩০৪ জন হত্যা, গুম করা হয়েছে ৬৫ জনেরও বেশি। বিএনপি নেতাকর্মীদেও বিরুদ্ধে ৩২ হাজার মামলা দেয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে খালেদা জিয়া মিথ্যাচার করেছেন।”

    আগামী এক মাসের মধ্যে এসব হতাহত এবং মামলাকৃত বিএনপির নেতা কর্মীদের দলীয় পদ, নাম, বাবার নামসহ ঠিকানা প্রকাশের দাবি জানান তিনি।হাসানুল হক ইনু আরও বলেন, “এ সময়ের মধ্যে তালিকা দিতে না পারলে জনসম্মুখে তাকে (খালেদা জিয়াকে) জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে। জনসমাবেশে আরো বলা হয়েছে ৫ মে হেফাজতের ইসলামে সমাবেশে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে রাতের অন্ধকারে আলেম-এতিমদের হত্যা করা হয়েছে। ওই দিনের সমাবেশে কোনো আলেম ছিলেন না। সেখানে জামায়াত ও হেফাজত ইসলামের নেতাকর্মীরা ছিলেন। তাদের উঠিয়ে দেয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে খালেদা জিয়া তার কল্পনাপ্রসূত আলেম হত্যাতত্ত্ব থেকে সরে আসেননি।”আবারো হেফাজতের সমাবেশে নিহতদের তালিকা দেয়ার আহ্বান জানান তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক।

    তথ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, “গণমাধ্যমের মাধ্যমে দেশবাসী জেনেছে বিএনপি- জামায়াতচক্রই কীভাবে হিন্দুদের ওপরে হামলা করেছে। এখন জঙ্গিতৎপড়তা শুরু করেছে।” এভাবেই তিনি একটি নির্বাচিত সরকারকে টেনে নামিয়ে ফেলা, জডিঙ্গবাদের উস্কানি দিচ্ছেন বলেও জানান ইনু।খালেদা জিয়ার উদ্দেশে হাসানুল হক ইনু বলেন, “আপনি মিথ্যাচার বন্ধ করুন, আন্দোলনের নামে নাশকতা-জঙ্গিবাদকে হালাল করার চেষ্টা বন্ধ করুন, তিন মাসব্যাপী নাশকতা-হত্যা নির্যাতনের জন্য জাতীর কাছে ক্ষমা চান, নির্দলীয় সরকারের রহস্যজনক প্রস্তাবের পরিবর্তে বাস্তবভিত্তিক রুপরেখা দিন।”যুদ্ধাপরাধী-জামায়াত-সন্ত্রাসীদের সঙ্গ ছাড়ারও আহ্বান জানান হাসানুল হক ইনু।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here