করোনা মহামারীতে শিক্ষা ব্যবস্থায় সিলেট সরকারি কলেজ’র ব্যতিক্রমী দৃষ্টান্ত

0
75
করোনা মহামারীতে শিক্ষা ব্যবস্থায় সিলেট সরকারি কলেজ’র ব্যতিক্রমী দৃষ্টান্ত
করোনা মহামারীতে শিক্ষা ব্যবস্থায় সিলেট সরকারি কলেজ’র ব্যতিক্রমী দৃষ্টান্ত

করোনা মহামারীতে শিক্ষা ব্যবস্থা অনেকটা পিছিয়ে পড়েছে । শিক্ষার্থীরা অনিশ্চয়তার মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। ক্লাস অ্যাসাইনমেন্ট ক্লাস টেস্ট এবং পরীক্ষা প্রায় বন্ধ বললেই চলে।

সিলেট সরকারি কলেজ ব্যতিক্রমী দৃষ্টান্ত উপস্থাপন করেছে। শিক্ষার্থীদের নিয়মিত পড়ালেখার মধ্যে মনোযোগী রাখতে তারা অনলাইন ক্লাস, ক্লাস টেস্ট এবং অনলাইন পরীক্ষা চালু করেছে।

গত ২৫ এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে এইচএসসি প্রথম বর্ষ এবং এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের অর্ধ-বার্ষিক পরীক্ষার ও  প্রাক নির্বাচনী পরীক্ষা  । প্রতিটি পরীক্ষায় থাকছে ৫০ টি বহু-নির্বাচনী প্রশ্ন । একাদশ শ্রেণির অর্ধ-বার্ষিক পরীক্ষা-২০২১ এ ১৯ টি প্রশ্নপত্রে এবং দ্বাদশ শ্রেণির অনলাইন প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষা ২০২১ এ ১৮ টি প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে । 

প্রথম দিন দ্বিতীয় বর্ষের ৭৬৮জন শিক্ষার্থী এবং প্রথম বর্ষের ৬৮৬ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে। মোট ছাত্র ছাত্রীদের প্রায় ৯৬% অনলাইনে তাদের মোবাইল এবং কম্পিউটার থেকে পরীক্ষা গুলো দিয়েছে।

সিলেট সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মাজহারুল ইসলাম বলেন, “আমরা চাই ছাত্র-ছাত্রীরা পড়া লেখার মাঝেই থাকুক। তাই পরীক্ষা নেয়ার কোন বিকল্প নেই। এর পাশাপাশি আমরা অ্যাসাইনমেন্ট এর ব্যবস্থা করছি। অ্যাসাইনমেন্ট ছাত্র-ছাত্রীরা হাতে লিখে অথবা টাইপ করে সাবমিট করতে পারবে। শিক্ষকরা মূল্যায়ন করে প্রত্যেক ছাত্রকে আলাদাভাবে ফিডব্যাক দিতে পারবে এবং মার্কস দিতে পারবেন। চলমান পরীক্ষা সমূহে  ২ থেকে ৫ পার্সেন্ট শিক্ষার্থী ইন্টারনেট এবং মোবাইল ফোনের কিছু ইন্টারনেট বিঘ্নিত হবার জন্য কিছু সমস্যা হচ্ছে। এর পরেও অধিকাংশ ছাত্রছাত্রীরা সহজেই পরীক্ষা দিতে পারছে বলে আমরা অনেক খুশি। রেনডমলি  ৩ টি করে প্রশ্ন প্রত্যেকবার আসায় একজন আরেকজনের সাথে  দেখাদেখি করার সুযোগ থাকেনা।” 

দ্বাদশ প্রাক-নির্বাচনী পরীক্ষার আহবায়ক হালিমা আক্তার বলেন, “শিক্ষার্থীরা অনলাইনে ক্লাস করার পাশাপাশি পরীক্ষা দেওয়ার মাধ্যমে পড়াশোনায়  আগ্রহী হবে এবং বুঝতে পারবে তাদের অবস্থানটা কোথায় আছে। এই উদ্যোগের মাধ্যমে আমাদের ছাত্র-ছাত্রীরা উপকৃত হবে আশা করি।” 

একাদশ অর্ধ-বার্ষিক পরীক্ষার আহ্বায়ক শাহনারা পারভীন বলেন, “আমি মনে করি পড়াশুনার পাশাপাশি পরীক্ষা নেয়ায় একজন শিক্ষার্থীর পড়াশুনার আগ্রহ যেমন বেড়ে যায় তেমনি তাদের পড়াশুনার গতিশীলতাও বজায় থাকে। সেজন্য আমরা অনলাইনে অর্ধবার্ষিক পরীক্ষার  আয়োজন করেছি এতে শিক্ষার্থীদের ব্যাপক সাড়া ও পাচ্ছি। এ পরীক্ষার মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা নিজেরাই নিজেদের মূল্যায়ন করতে পারবে।” 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here