কমলগঞ্জে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কুটুক্তি নিয়ে তোলপাড়

    0
    9

    আমার সিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০৬জানুয়ারী,কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ কমলগঞ্জ উপজেলার মাধবপুর ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান মোতাহের আলীকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মিথ্যা কটুক্তি প্রচারের প্রতিবাদে এলাকাবাসী তীব্র ক্ষোভ ও দায়ী ব্যক্তির বিরুদ্ধে শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় ধলাইপার গ্রামে এলাকাবাসীর আয়োজনে প্রবীণ সমাজসেবক মোঃ আনর মিয়ার সভাপতিত্বে ও নেকবর মিয়ার স লনায় প্রতিবাদ সভায় উপস্হিত ছিলেন মাধবপুর ইউপি চেয়ারম্যান পুস্প কানু, প্যানেল চেয়ারম্যান-১ মোহাম্মদ মোতাহের আলী, সংরক্ষিত মহিলা সদস্য সুফিয়া বেগম। সভায় স্থানীয়দের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সমাজ সেবক সাদির আলী, মোঃ নূর মিয়া, মোশাহিদ আলী, মাসুক মিয়া, রাজা মিয়া,আসিম মিয়া প্রমূখ।
    স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইউপি সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান-১ মোহাম্মদ মোতাহের আলীকে নিয়ে সম্প্রতি ধলাইপার গ্রামের আব্দুল হান্নানের পুত্র মানসিক ভারসাম্যহীন প্রবাস ফেরত মো. লিমন মিয়া ও তার স্ত্রী সহ পরিবারের সাথে কলহ দেখা দিলে লিমনের পিতা ইউপি সদস্য মোহাম্মদ মোতাহের আলীর শরণাপন্ন হন। পরে বিষয়টি সালিশ বৈঠকের মাধ্যমে নিষ্পত্তির অনুরোধ করলে মোতাহের আলী হান্নান মিয়ার বাড়ীতে গেলে মানসিক ভারসাম্যহীন লিমন ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে লাি ত করার চেষ্টা করে। পরে এলাকাবাসী লিমন কে উত্তম মধ্যম দিয়ে পুলিশের হাতে দিতে গেলে ইউপি সদস্যের সহায়তায় তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।
    এ ঘটনার সপ্তাহ খানিক পর একটি কুচক্রীমহল ইউপি সদস্য মোহাম্মদ মোতাহের আলীর ছবি সহ ফেসবুকে একটি ভূয়া আইডি থেকে তার মানসম্মান ক্ষুন্ন করার লক্ষ্যে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে লিমন মিয়ার স্ত্রীকে জড়িয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অপপ্রচার চালাতে থাকে। তবে বাস্তবে এর কোন সত্যতা পাওয়া যায়নি।
    এদিকে মাধবপুর ইউপি সদস্য ও প্যানেল চেয়ারম্যান-১ মোহাম্মদ মোতাহের আলী বাদী হয়ে গত বৃহস্পতিবার রাতে কমলগঞ্জ থানায় অভিমানী প্রেম ও সন্ধ্যাতারা নামে ভূয়া আইডির বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
    মামলাটি তদন্ত অফিসার কমলগঞ্জ থানার এস আই চম্পক দাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে আমরা তদন্ত করছি।

     

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here