কমলগঞ্জে বৃদ্ধের অনুভূতি ‘টিকা গ্রহন ভয়ের নয় আনন্দের’

    0
    7

    কমলগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে প্রথম দিন টিকা নিলেন ৮০ বছরের বৃদ্ধ শহিদ উদ্দীন চৌধুরীসহ ২০ জন।রোববার (৭ ফেব্রুয়ারী) দুপুর সাড়ে ১২টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মৌলভীবাজার-৪ আসনের সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ ড.আব্দুস শহীদ কর্তৃক টিকা গ্রহণ কার্যক্রম উদ্বোধনের পরপর এদিন প্রথম টিকা নিলেন করোনা থেকে সুস্থ হওয়া চিকিৎসক ডা. সৌমিত্র সিনহা।সস্ত্রীক টিকা নিতে আসা শমসেরনগরের বয়োবৃদ্ধ শহীদ উদ্দীন চৌধুরীর অনুভূতি আনন্দের। তিনি বলেন, করোনার টিকা গ্রহন ভীতির নয় আনন্দের বিষয়।

    কমলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশেকুল হকের সভাপতিত্বে ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. এম মাহবুবুল আলম ভূঁইয়ার স ালনায় টিকাদান অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বিলকিছ বেগম, কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. জুয়েল আহমেদ, কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আরিফুর রহমান, কমলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগ সভঅপতি আছলম ইকবাল, উপজেলা দূর্ণীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ইমতিয়াজ আহমেদ বুলবুল প্রমুখ।কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ও উপজেলা টিকা কমিটির সদস্য সচিব ডা. এম মাহবুবুল আলম ভূইয়া জানান, সারাদেশের সাথে কমলগঞ্জ উপজেলায়র করোনা টিকার জন্য গত ২ ফেব্রুয়ারি থেকে অনলাইনে নিবন্ধন শুরু হয়েছে।

    শনিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত কমলগঞ্জ উপজেলা থেকে ৯০০ জন টিকার নিবন্ধন করেছেন। নিবন্ধিতদের মাঝে তালিকা অনুযায়ী প্রথম ১০০ জনকে আজ রোববার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে টিকা প্রয়োগ করা হয়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কমলগঞ্জে প্রথম দিন টিকা নিয়েছেন ২০ জন। পর্যায়ক্রমে নিবন্ধিত সবাইকে টিকা দেওয়া হবে।
    টিকা গ্রহন করে অনুভূতি প্রকাশ করে ডা. সৌমিত্র সিনহা বলেন, তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়ে হোম আইসোলেশনে থেকে সুস্থ্য হয়েছিলেন। যেহেতু দেশে টিকা এসেছে এবং সরকারি উদ্যোগে টিকা প্রয়োগ শুরু হয়েছে তাই বিধি মোতাবেক তিনি নিবন্ধন করেই প্রথম টিকা নিলেন। এতে তার খুবই ভালো লাগছে যে, করোনায় আক্রান্ত হয়েছিরেন আবার প্রথমেই এ উপজেলায় তিনি টিকা নিলেন।
    সকাল ১১টায় শ্রীমঙ্গলে টিকা গ্রহন করে কমলগঞ্জে টিকা কার্যক্রম উদ্বোধন শেষে সাংসদ উপাধ্যক্ষ এম এ শহীদ বলেন, করোনা প্রতিরোধে প্রধান মন্ত্রীর নেতৃত্বে দৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহন করা হয় শুরু থেকেই। তাইতো বাংলাদেশে মৃত্যুর হার অনেক কম। তিনিও ঢাকায় করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন উল্লেখ করে বলেন, যেহেতু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে দেশে টিকা আনা হয়েছে এবং সরকারি উদ্যোগে টিকাদান শুরু হয়েছে সেহেতু নিবন্ধন করে সবাইকে টিকা গ্রহন করা উচিত।