কমলগঞ্জে নদীপথে প্রায় অর্ধলক্ষ অবৈধ বাঁশ আটক

    0
    1

    আমারসিলেট24ডটকম,এপ্রিলঃ শাব্বির এলাহীঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে নদীপথে অবৈধভাবে পরিবহনকালে কর্ণফুলী পেপার মিলের প্রায় অর্ধ লক্ষ বাঁশ শনিবার সকালে আটক করেছে বন বিভাগ। এ ঘটনায় সহকারী বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (এসিএফ)-কে প্রধান করে ১ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।জানা যায়, কমলগঞ্জের কুরমা বাঁশ মহালের বাঁশ কাটিং এবং পরিবহন কাজ পান মহালদার গোলাম কিবরিয়া চৌধূরী। ওই মহাল থেকে বন বিভাগের ডি-ফরম ছাড়াই নদীপথে প্রায় সময় বাঁশ পরিবহন করা হচ্ছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। গোপন সংবাদের ভিক্তিতে শনিবার সকালে সিলেট বিভাগীয় বন কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে বন বিভাগ কুরমা বনবিট সংলগ্ন মখাবিল ও ঘোড়ামারা এলাকার ধলাই নদী থেকে ৪২ হাজার বাঁশ আটক করা হয়।

    বন বিভাগের ডি-ফরম ছাড়াই কুরমা বাঁশ মহাল থেকে পাহাড়িছড়া দিয়ে ধলাই নদীতে আসলেও রহস্যজনক কারণে বন বিভাগ ছিল নিরব। অভিযোগ রয়েছে কুরমা বাঁশ মহাল থেকে সংশ্লি¬ষ্টদের ম্যানেজ করে অবৈধভাবে বাঁশ নামানো হয়ে থাকে। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে কুরমা বাঁশ মহালের বাঁশ কাটিং এবং পরিবহন মহালদার গোলাম কিবরিয়া চৌধূরী বলেন, বাঁশগুলো ধলাই নদী দিয়ে পরিবহনকালে ভারত সীমান্ত দিয়ে করতে হয়। সীমান্ত সমস্যার কারণে ডি ফরম কাটা হয়নি। তবে বাঁশগুলো অবৈধ নয় সম্পূর্ণ বৈধ।

    বাঁশ আটকের সত্যতা স্বীকার করে কমলগঞ্জের রাজকান্দি রেঞ্জ কর্মকর্তা মো: মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, কাগজপত্র যাছাই-বাছাই পূর্বক এ ব্যাপারে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ঘটনায় সিলেট বিভাগীয় বন কর্মকর্তার নির্দেশে শ্রীমঙ্গলস্থ সহকারী বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (এসিএফ)-কে প্রধান করে ১ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here