কংগ্রেসের অনুমোদন পেলেই যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ায় সামরিক অভিযান চালাবে

    0
    2

    ”সিরিয়ায় হামলার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রকে সমর্থন করেছে ফ্রান্স। অন্যদিকে ব্রিটিশ এমপিরা এর বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। রাশিয়া সরাসরি বিরুদ্ধে না গেলেও বিষয়টি ভেবে দেখার জন্য ওবামার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। তবে ইরান হুমকি দিয়েছে, সিরিয়ায় হামলা হলে ইসরায়েলে আগুন জ্বলবে”

    আমারসিলেটটোয়েন্টিফোর.কম০১ সেপ্টেম্বর  : মার্কিন কংগ্রেসের অনুমোদন পেলেই যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ায় সামরিক অভিযান চালাবে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম সূত্র জানায়, বাংলাদেশ সময় গতকাল শনিবার মধ্যরাতে হোয়াইট হাউসের রোজ গার্ডেনে এক সংবাদ সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট এ কথা জানান।
    বারাক ওবামা বলেন, সিরিয়ায় সামরিক অভিযান চালানো উচিত, কিন্তু এ জন্য আলোচনা এবং কংগ্রেসের ভোট দুটোই গুরুত্বপূর্ণ। আগামী ৯ সেপ্টেম্বর কংগ্রেস এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।তবে বারাক ওবামা এও বলেন,সামরিক অভিযান আগামীকালও হতে পারে, পরবর্তী সপ্তাহেও হতে পারে অথবা কাছাকাছি সময়েও হতে পারে। আর এ হামলা হবে জাতিসংঘের অনুমতি ছাড়াই।
    প্রেসিডেন্ট ওবামা সংবাদ সম্মেলনে রাসায়নিক অস্ত্রের হামলার প্রসঙ্গ টেনে বলেন, ভবিষ্যতে যাতে রাসায়নিক অস্ত্রের ব্যবহার না হয় সেজন্য সীমিত আকারে স্বল্প সময়ের জন্য সিরিয়াতে সামরিক অভিযান চালানো হবে। অবশ্য সিরিয়া সরকার  ওই হামলা ও রাসায়নিক অস্ত্র ব্যহারের বিষয়টি অস্বীকার করেছে।
    শুক্রবার প্রকাশিত যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ২১ আগস্ট সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে রাসায়নিক অস্ত্রের হামলায় এক হাজার চারশ’ ২৯ জন নিহত হয়েছে। ওই হামলার জন্য সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের অনুগত বাহিনীকে দায়ী করা হয়।
    জাতিসংঘের অস্ত্র পরিদর্শক দল দামেস্কের ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করে সিরিয়া ত্যাগ করেছে। নেদারল্যান্ডসের একটি গবেষণাগারে তা পরীক্ষার পর তারা জাতিসংঘে প্রতিবেদন জমা দেবে দলটি। পুরো পরীক্ষার কাজটি সম্পন্ন হতে তিন সপ্তাহ সময় লাগবে বলে জানা গেছে। 

    সংবাদ সম্মেলনে বারাক ওবামা আরও বলেন, সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে যা ঘটেছে, তা দেখে আমরা চোখ বন্ধ করে থাকতে পারি না। সিরিয়ায় যে কোনো সময় হামলা চালাতে প্রস্তুত যুক্তরাষ্ট্র। সিরিয়ায় হামলা চালানোর ব্যাপারে ওবামা কংগ্রেসের অনুমোদনের কথা বললেও, সংবিধান অনুযায়ী সে অনুমোদন ছাড়াই হামলার নির্দেশ দেয়ার ক্ষমতা ওবামার আছে।
    সিরিয়ায় হামলার ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রকে সমর্থন করেছে ফ্রান্স। অন্যদিকে ব্রিটিশ এমপিরা এর বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। রাশিয়া সরাসরি বিরুদ্ধে না গেলেও বিষয়টি ভেবে দেখার জন্য ওবামার প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। তবে ইরান হুমকি দিয়েছে, সিরিয়ায় হামলা হলে ইসরায়েলে আগুন জ্বলবে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here