এখন থেকে রাস্তায় যাবো গাড়ি চেক করবোঃযোগাযোগমন্ত্রী

    0
    2

    আমারসিলেট24ডটকম,১৫জানুয়ারীঃ যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, “এই সরকার পাঁচ বছরের জন্য নির্বাচিত হয়েছে। তবে জোর করে পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকার মানসিকতা বা চেতনা আমাদের নেই। আমরা কতদিন ক্ষমতায় থাকবো তা জনগণের মনমানসিকতার ওপর নির্ভর করবে।”

    নতুন সরকার গঠনের পর বুধবার সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাকর্মচারীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।বিএনপির আন্দোলন সম্পর্কে যোগাযোগমন্ত্রী বলেন, “তাদের গণতন্ত্রের অভিযাত্রায় ৫০০ লোকও হয়নি। তাদের রণকৌশলই ভুল ছিল। জনগণকে নিয়ে তারা যদি আন্দোলনের কৌশল নেন আমরা তাদের স্বাগত জানাবো।” বিএনপিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, “একটি বড় দল জাতীয় নির্বাচনে না আসায় আমরা কিছুটা হলেও বিব্রত হয়েছি।”

    জাতীয় পার্টি সম্পর্কে মন্ত্রী আরও বলেন, ” তারা এক সময় মহাজোটে ছিলেন, এখন বিরোধীদলে চলে গেছেন। তারা ঘোষণা দিয়েছিলেন আলাদাভাবে নির্বাচন করবেন। যেভাবেই হোক নির্বাচন হয়ে গেছে। অপজিশন তো অপজিশনই। তাদের বিরোধী দলেই থাকা উচিত।”এ সময় তিনি মন্তব্য করেন, “বন্যেরা বনে সুন্দর, শিশুরা মাতৃক্রোড়ে।”

    জাপার এমপিদের উদ্দেশে কাদের বলেন, “তারা ৩৩ জনই যদি মন্ত্রিত্ব চান তাহলে চলবে কীভাবে। তাদের উচিত বিরোধী দলে থেকে সরকারের সমালোচনা করা।”

    ‘প্রথম রাতেই বিড়াল মারতে হবে’ উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, “আজ থেকে যানজট ও দুর্ঘটনার বিরুদ্ধে আমরা নিরলসভাবে সংগ্রাম করে যাবো। এটা হবে আমার প্রথম অগ্রাধিকার। এখন থেকে রাস্তায় যাবো,গাড়ি চেক করবো।” অবৈধ ও আনফিট গাড়ি, অবৈধ দখল এসব বিষয়ে আরো কঠিন হবেন বলেও জানান যোগাযোগমন্ত্রী।

    তিনি বলেন, “হুঙ্কার দিয়ে নয়, আরো বিনয়ী হয়ে কাজ করার চেষ্টা করবো। সাধারণত মানুষ লঙ্কায় গেলে রাবণ হয়ে যায়। আমি রাবণ হবো না। এবার আমি যানজটের বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করবো। দুর্ঘটনা কমাতে নিরলসভাবে লড়াই চালিয়ে যাবো।”

    যোগাযোগমন্ত্রী বলেন, “আমি যে স্টাইলে কাজ করি তা জনগণের পছন্দের স্টাইল। বাংলাদেশের জনগণ আমার এ স্টাইল নিশ্চই পছন্দ করে।”

    কাদের বলেন, “মানুষের মনের ভাষা চোখের ভাষা বুঝি, মানুষ যেটা পছন্দ করে সেটাই করি, আমি নিজের চেহারা দেখানোর জন্য কোথাও যাই না, যেখানেই যাই রাস্তায়-ব্রিজে কাজ দেখার জন্য যাই।”

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here