আ’লীগের ২পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক মারা গেলো

    0
    37

    অবশেষে নোয়াখালীতে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির (২৫) মারা গেছেন।  শনিবার রাত ১১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। এর আগে তিনি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি ছিলেন।

    গত শুক্রবার দিবাগত রাতে তাকে নোয়াখালী থেকে ঢাকায় আনা হয়। আইসিইউ’র ১৭ নম্বর বেডে তিনি চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার অবস্থা গুরুতর ছিল বলে জানিয়েছিল চিকিৎসকেরা। বোরহান দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকার কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি।

    রোববার ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া সাংবাদিক বোরহান উদ্দিনের মৃত্যুর বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন।

    পুলিশের এ কর্মকর্তা জানান, রাত ১১টার দিকে বোরহান উদ্দিন মারা যান। মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে। চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, বোরহান উদ্দিনের গলায় গুলি লেগেছিল। তার অবস্থা সংকটাপন্ন ছিল, আইসিইউ’র ১৭ নম্বর বেডে ছিলেন তিনি। সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

    বোরহান উদ্দিনের বড় ভাই মো. নুর উদ্দিন জানান, শুক্রবার রাত থেকেই বোরহান উদ্দিন আইসিইউতে ছিলেন। মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তার জ্ঞান ফিরেনি।

    উল্লেখ্য, নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চাপরাশিরহাট কাঁচাবাজারে গত শুক্রবার বিকেলে আ’লীগের ২ পক্ষের সংঘর্ষে সংবাদকর্মীসহ চারজন গুলিবিদ্ধ হয়। স্থানীয় সূত্র মতে সংঘর্ষে অন্তত ৩৫ জনের আহত হওয়ার তথ্য পাওয়া যায়।