Tuesday 29th of September 2020 04:12:50 AM
Saturday 2nd of January 2016 03:44:25 PM

আমি নিজে এতিমঃপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

জাতীয় ডেস্ক
আমার সিলেট ২৪.কম
আমি নিজে এতিমঃপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আমারসিলেট টুয়েন্টিফোর ডটকম,০২জানুয়ারী: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, “আমার সরকার ক্ষমতায় এসেছে এতিমদের কল্যাণ করার জন্য। তাদের টাকা চুরি করে খেতে নয়। আমি নিজে এতিম। আমার চেয়ে এতিমদের কষ্ট কে আর বেশি বোঝে। আমি নিজে এতিমদের দায়িত্ব নিয়েছি। আওয়ামী লীগ সরকার এতিমদের দায়িত্ব নিয়েছে।”
শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর ওসমানী মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় তিনি এমন মন্তব্য করেন। সমাজ সেবা অধিদপ্তর এই আলোচনা সভার আয়োজন করে।
তিনি বলেন, আমরা অস্বচ্ছল, প্রতিবন্ধী ও সমাজের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জন্য কাজ করছি। আমরা বিধবা ও স্বামী পরিত্যাক্তদের ভাতা দিচ্ছি। আশ্রয়ন প্রকল্প করে প্রায় দেড় লাখের মতো মানুষকে পুনর্বাসন করে দিয়েছি। যাদের ভিটে-মাটি আছে তাদের আমরা গৃহায়ন তহবিল থেকে ঘর তৈরি করে দিচ্ছি।
প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে দেশের হতদরিদ্র মানুষের কল্যাণে নেয়া তার সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে বলেন, ‘উন্নয়নের এই ধারা সারাদেশে ছড়িয়ে দিতে হবে।’
শেখ হাসিনা বলেন, ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার ২১ বছর পর অওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে সমাজের হত দরিদ্রগোষ্ঠীর জন্য বয়স্ক ভাতা, বিধবাভাতাসহ নানা কর্মসূচি চালু করে। সমাজসেবা অধিদপ্তর সেইসব কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। সর্বস্তরের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নতি না ঘটলে দেশ এগুবে না বলে মত দেন তিনি।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৪ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দরিদ্র বিমোচন কর্মসূচি গ্রহণ করেন। বর্তমান সরকার সেই কর্মসূচিই বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে।
তিনি বলেন, “আগের সরকারগুলো প্রতিবন্ধীদের মূল জনসংখ্যার সঙ্গে সম্পৃক্ত করেনি। তার সরকার প্রতিবন্ধীদের হিসাব করেছে। দেশে বর্তমানে ১৪ লাখের মতো প্রতিবন্ধী রয়েছে। এর মধ্যে ৬ লাখ প্রতিবন্ধীকে সরকার মাসে ৫০০ টাকা করে ভাতা দিয়ে যাচ্ছে।”
তিনি বলেন, বাংলাদেশের উন্নতি তখনই হবে যখন সর্বস্তরের মানুষ নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে। সরকার সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।
ভিক্ষাবৃত্তির উল্লেখ করে তিনি বলেন, “এটি একটি হীন কাজ। কেউ ভিক্ষা করতে পারবে না।’ এসময় ভিক্ষুকদের জন্য কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে তিনি সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেন।”
প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকারের লক্ষ্য হচ্ছে সমাজে কেউ কারো বোঝা হবে না। সবাই নিজের পায়ে দাঁড়াবে। সবাই কাজ করে খাবে। সরকার মানুষের জন্য সেই কাজের সুযোগ করে দিচ্ছে। তার সরকার ২০২১ সালের মধ্যে দারিদ্রের হার ১৪ শতাংশের নিচে নামিয়ে আনতে কাজ করে যাচ্ছে বলেও যোগ করেন তিনি।
তিনি বলেন, সমাজের সবার উন্নতি করতে না পারলে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়া যাবে না।
শেখ হাসিনা আরও বলেন, “এতিমদের দায়িত্ব আমরা নিয়েছি, আওয়ামী লীগ সরকার নিয়েছে, আমি নিয়েছি। প্রত্যেকের জীবনমান উন্নয়ন- এটাই আমাদের লক্ষ্য। সেই লক্ষ্য নিয়েই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।”
সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী প্রমোদ মানকিনের সভাপতিত্বে অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সমাজকল্যাণ বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোজাম্মেল হোসেন, সচিব তারিকুল ইসলাম ও সমাজকল্যাণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক গাজী মোহাম্মদ নুরুল কবির প্রমুখ।


সম্পাদনা: News Desk, নিউজরুম এডিটর

আমারসিলেট২৪.কম’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Place for advertisement
Place for advertisement

সর্বশেষ সংবাদ


সর্বাধিক পঠিত

এডিটর: আনিছুল ইসলাম আশরাফী, এনিমেটরস্ বাংলা মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক প্রকাশিত
সম্পাদকীয় কার্যালয়: কলেজ রোড, শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার।
Email: news.amarsylhet24@gmail.com Mobile: 01772 968 710

Developed By : i-Tech Sreemangal
Email : itech.official@hotmail.com
Facebook : http://facebook.com/itech.ctc