আত্রাইয়ে নারীসহ মূর্তি চোরাকারবারি চক্রের ১০ সদস্য আটক

    0
    9

    নাজমুল হক নাহিদ,আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি : নওগাঁর আত্রাইয়ে মূর্তি চক্রের একজন নারীসহ ১০ সদস্যকে আটক করেছে আত্রাই থানা পুলিশ। তারা দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে সঙ্গবদ্ধ হয়ে মূর্তি কিনতে এসে ফেঁসে যায়। বিষয়টি জানতে পেরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তাদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।

    আটককৃতদের শনিবার সকালে তাদের নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

    জানা যায়, শুক্রবার রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার ডোখলপাড়া গ্রামের নঈমুদ্দিনের ছেলে আনোয়ার হোসেন (৪০) বিশেষ ধাতব (যা আগুনে গলেনা) দ্বারা তৈরি “প্লাটিনাম” (মূর্তি) বিক্রির প্রলোভন দিয়ে একটি প্রতারক চক্রকে আত্রাইয়ে নিয়ে আসে। শুক্রবার বেলা ১০ টার দিকে ১০ জনের ওই চক্র উপজেলার আহসানগঞ্জ হাট চত্বরে পৌঁছলে সেখানে তাদের মাঝে দর কশাকসি শুরু হয়।

    এদিকে ক্রেতা সেজে আগতরা আগে প্লাটিনাম দেখতে চায়। আনোয়ার বলে আগে ৩ কোটি টাকা দিন। টাকা দিলে প্লাটিনাম দেব। এ নিয়ে তাদের মাঝে বাকবিতন্ডার শুরু হলে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আক্কাছ আলী তাদেরকে আটক করেন। পরে আত্রাই থানা পুলিশ গিয়ে তাদেরকে থানায় নিয়ে আসে। আটককৃতরা হলো রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার ডোখলপাড়া গ্রামের নঈমুদ্দিনের ছেলে আনোয়ার হোসেন (৪০), মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার বাসুদেবপুর গ্রামের মৃত মোসলেম মাতব্বরের ছেলে সেন্টু মাতব্বর (৩৮), গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার কেকনিয়া গ্রামের মৃত রওশন আলীর ছেলে হানিফ মিয়া (৪০), একই উপজেলার নিজরা গ্রামের লুৎফর রহমানের ছেলে আজিজুর রহমান (৩৮), বি.বাড়িয়ার নাসিরগঞ্জ উপজেলার বড়ইউড়ি গ্রামের হরি চরন সরকারের ছেলে বিমল চরণ সরকার জয় (৪০), দিনাজপুরের বিরল উপজেলার রাজুরিয়া গ্রামের গোলাম হোসেনের ছেলে ছাইফুল ইসলাম (৪৫), নড়াইলের নরাগাঁথী উপজেলার কেশবপুর গ্রামের আসাদুজ্জামানের ছেলে রুবেল (৩৪), একই উপজেলার একই গ্রামের সবুর মোল্লার ছেলে ফারুক মোল্লা (৩০), নওগাঁর বদলগাছি উপজেলার পুকুরিয়া গ্রামের মফিজ মিলিটারীর ছেলে জাহিদ (৪০), যশোরের অভয়নগর উপজেলার বাশুরিয়া দিঘীরপাড় গ্রামের ইব্রাহীম মোল্লার মেয়ে রোজিনা (৩০)।

    এ বিষয়ে আত্রাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মো. আবুল কালাম আজাদ বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং শনিবার সকালে তাদের সবাইকে নওগাঁ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।